বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮

#Breaking: হরিণঘাটা পুরসভা দখলে রাখল তৃণমূল, বিজেপি-কে হারাল মাত্র ১ ভোটে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হরিণঘাটা পুরসভার চেয়ারম্যান পদে জিতলেন তৃণমূলের পদপ্রার্থীই। বিজেপি-র প্রার্থীকে হারাল এক ভোটে। ১৭ আসনের হরিণঘাটা পুরসভার সাত তৃণমূল কাউন্সিলর কয়েকদিন আগেই বিজেপি-তে যোগ দিয়েছিলেন।  জল্পনা তুঙ্গে উঠেছিল, তাহলে কি এ বার হরিণঘাটাতেও পদ্মফুল ফুটবে। কিন্তু এ দিন বিজেপি আরও একটি অতিরিক্ত ভোট পেলেও, সম্মানের লড়াইয়ে জিতল তৃণমূল। ৯-৮ ভোটে জিতে চেয়ারম্যান হলেন তৃণমূলের মানিক ভট্ট।

কয়েকদিন আগেই হরিণঘাটার পুরপ্রধান রাজীব দালাল পদত্যাগ করেন। বিরোধী শূন্য ছিল নদিয়ার এই পুরসভা। স্বেচ্ছায় পদত্যাগ বললেও সে দিনই অনেকে বলেছিলেন নিশ্চয়ই বিজেপি-র সঙ্গে যোগযোগ রাখছেন। পড়ে দেখা যায় রাজীব-সহ সাত কাউন্সিলর গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন। নদিয়ার বিজেপি নেতারা বলতে শুরু করেছিলেন সামনে সংখ্যাটা সাত হলেও ভোটাভুটি হলে বোর্ড দখল করবে বিজেপি-ই।

এ দিন সকাল থেকেই হরিণঘাটা পুরসভা কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়। ১৭ জন কাউন্সিলরই উপস্থিত হন চেয়ারম্যান নির্বাচনের ভোটে। তৃণমূলের মানিক ভট্টের বিরুদ্ধে বিজেপি-র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হন দিলীপ রায়। কিন্তু হারতে হয় এক ভোটে। তবে এ দিনও যে এক কাউন্সিলর নিশ্চুপে বিজেপি-র দিকে ভোট দিয়েছেন তা-ও পরিষ্কার। না হলে তৃণমূলের ১০টি ভোট পাওয়ার কথা।

গতকালই বিজেপি-তে যোগ দেওয়া হালিশহর পুরসভার ৮ কাউন্সিলর তৃণমূলে ফিরেছেন। ফিরহাদ হাকিম, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকরা দাবি করেছেন, বোর্ড তৃণমূলেরই থাকবে। পাল্টা ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং বলেছেন, তৃণমূল দিবাস্বপ্ন দেখছে। হালিশহর বিজেপি-র দখলেই থাকবে। এর মধ্যেই আবার গুঞ্জন শুরু হয়েছে মুকুল রায়ের খাসতালুক কাঁচড়াপাড়া পুরসভার ৯ জন কাউন্সিলর নাকি তৃণমূলে ফিরে আসবেন। যদিও এ ব্যাপারে সরকারি ভাবে তৃণমূল বা কাউন্সিলরদের কেউ এখনও মুখ খোলেনি।

তবে হরিণঘাটা দখলে রাখার পর পর্যবেক্ষকদের অনেকেই মনে করছেন, ধারাবাহিক ভাবে যে হাতছাড়া হচ্ছিল পুর ও পঞ্চায়েত বোর্ড, হরিণঘাটার ক্ষেত্রে তা রুখে দিল শাসক দল।

Comments are closed.