বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১
TheWall
TheWall

বীরভূমে খুন তৃণমূল নেতা, রাজনৈতিক রেষারেষি না ব্যক্তিগত শত্রুতা, ধন্ধে পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিনেদুপুরে বোমা মেরে খুন করা হল বীরভূমের রামপুরহাট মহকুমার দোখলবাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল নেতাকে। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে খবর, রামপুরহাট শহরের বাইরেই রামপুরহাট-দুনিগ্রাম রোডের উপর জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের মুখে দোখলবাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল নেতা বাবুল শেখকে ( ৫০ ) শনিবার বোমা মেরে খুন করা হয়েছে। এই বাবুল শেখ দোখলবাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন কংগ্রেস প্রধান হানিফ শেখের ছেলে।

জানা গিয়েছে, ঘটনার সময় বাইক চালিয়ে যাচ্ছিলেন বাবুল। সেই সময় তাঁকে লক্ষ্য করে বোমা মারে দুষ্কৃতীরা। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন বাবুল। বোমার শব্দ শুনে আশেপাশের মানুষজন ছুটে আসে সেখানে। তার আগেই অবশ্য দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মারা যান বাবুল। খবর পেয়ে সেখানে যান রামপুরহাট মহকুমার পুলিশ আধিকারিক সৌম্যজিৎ বড়ুয়া ও রামপুরহাট থানার আইসি সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়। এসে পৌঁছয় বিশাল পুলিশবাহিনী।

এই ঘটনার পর থেকে এলাকা উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে। একটি সূত্রে খবর, রাজনৈতিক শত্রুতার জেরে খুন হতে হয়েছে বাবুলকে। বাবা কংগ্রেসের প্রাক্তন প্রধান হলেও তিনি নিজে তৃণমূল করতেন। সেই কারণে তাঁকে খুন করা হয়ে থাকতে পারে বলে অভিযোগ। অন্য একটি সূত্রের খবর, ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরেও খুন করা হয়ে থাকতে পারে বাবুলকে। রাজনীতি ছাড়াও বিভিন্ন ব্যবসা ছিল বাবুলের। সেই কারণেও কোনও গণ্ডগোলের জেরে হামলা চালানো হয়ে থাকতে পারে।

কী কারণে বাবুল শেখকে খুন করা হল তা নিয়ে এখনও ধন্ধে পুলিশ। তাঁর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রামপুরহাট থানার পুলিশ।

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯ – এ প্রকাশিত গল্প

Comments are closed.