শনিবার, মে ২৫

#Breaking: কালই ঘোষণা করব প্রার্থী তালিকা, জানিয়ে দিলেন মমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সোমবার সকালেই দ্য ওয়াল  জানিয়েছিল, মঙ্গলবার তৃণমূলের নির্বাচন কমিটির বৈঠকের পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লোকসভার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেবেন। হলোও তাই। এ দিন নবান্ন থেকে বেরনোর সময় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আগামী কাল দুপুর একটা পনেরো থেকে আমাদের স্টিয়ারিং কমিটির মিটিং রয়েছে। জেলা সভাপতিরাও আসবেন। তারপরই সাড়ে তিনটের সময় সাংবাদিক সম্মেলন করে মা-মাটি-মানুষের আশীর্বাদ নিয়ে আমরা প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করব।”

প্রথমে ভাবা হয়েছিল বুধবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করবেন মমতা। কিন্তু পর্যবেক্ষকদের মতে, স্টিয়ারিং কমিটি এবং জেলা সভাপতিদের নিয়ে বৈঠক করার পর তা আর গোপন রাখা যাবে না। তাই কালকেই তালিকা ঘোষণা করে দেবেন দিদি। র্থী বাছাইয়ের কাজ ভিতরে ভিতরে অনেক আগে থেকে শুরু করে দিয়েছেন মমতা। সূত্রের খবর, যাঁরা প্রার্থী হবেন এরই মধ্যে তাঁদের অনেককে প্রস্তুতি শুরু করতে বলে দিয়েছেন দিদি। এর মধ্যে, যেমন গতবারের জেতা সাংসদ রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন কয়েকজন বিধায়ক ও মন্ত্রী। সোমবার বিকেলে ঝাড়গ্রামের সাংসদ উমা সরেন, আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দার এবং মেদিনীপুরের সাংসদ সন্ধ্যা রায়কে নবান্নে ডেকে পাঠিয়েছিলেন দিদি। মনে করা হচ্ছে এঁদের আর এ বার টিকিট দেওয়া হবে না। সে কথা জানাতেই নবান্নে ডেকে পাঠানো হয়েছিল।

খনার বচন উল্লেখ করে এ দিন মমতা বলেন, “মঙ্গলে ঊষা, বুধে পা।” অর্থাৎ মঙ্গলবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হওয়ার পর বুধবার থেকেই সারা রাজ্যে ভোট যুদ্ধে নেমে পড়বে তৃণমূল। রবিবার বিকেলে লোকসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করে দিয়েছে। বরাবর যেদিন নির্বাচন ঘোষণা হয়, সে দিনই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেন মমতা। শুধু ২০০৯এর ভোটে কংগ্রেসের সঙ্গে জোট হওয়ায় সেটা হয়নি। এ নিয়ে ক্ষোভও উগরে দিয়েছিলেন মমতা। কিন্তু এ বার সত্যিই সত্যিই চাপের নির্বাচন। তাঁর টার্গেট বিয়াল্লিশে বিয়াল্লিশ। তাই দল, প্রশাসন, পুলিশ, গোয়েন্দা সব সূত্র থেকে খবর নিয়ে, সব দিক বিবেচনা করে অতি সতর্কতার সঙ্গে প্রার্থী তালিকা তৈরি করেছেন দিদি।

The Wall এতে পোস্ট করেছেন সোমবার, 11 মার্চ, 2019

Shares

Comments are closed.