মঙ্গলবার, মার্চ ১৯

নন্দীগ্রাম থেকে নেতাই, শহিদ পরিবারের পাশে একা শুভেন্দু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত বছরের ১০ নভেম্বর। নেতাজি ইন্ডোরে চাঁদের হাট। গোটা কলকাতা তখন চলচ্চিত্র উৎসবের আলোয় আলোকিত। কিন্তু সবার আড়ালে নন্দীগ্রামের বিধায়ক তথা রাজ্যের পরিবহণ ও পরিবেশমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে পৌঁছে গিয়েছিলেন সেখানে। সোমবারও নন্দীগ্রাম আন্দোলনের শহিদ ভরত, সেখ সেলিম এবং বিশ্বজিৎদের স্মরণে কাকভোরে সেখানে পৌঁছে গিয়েছিলেন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের পুরোধা নেতা।

২০০৮ থেকেই এই দিনটিকে শ্রদ্ধার সঙ্গে পালন করে তৃণমূল। এ দিন মোমবাতি মিছিলের পর সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন মন্ত্রী। বলেন, “নতুন প্রজন্মের কাছে বেশি বেশি করে নন্দীগ্রাম আন্দোলনের কথা তুলে ধরতে হবে।” নন্দীগ্রামের কর্মসূচি শেষ করেই শুভেন্দু যান নেতাই গণহত্যায় শহিদদের স্মরণ অনুষ্ঠানে।

বিকেলে তমলুকে ব্রিগেডের প্রস্তুতি সভা সারেন শুভেন্দু অধিকারী। কার্যত মিনি ব্রিগেডে পরিণত হয় তমলুকে শুভেন্দুর সভা। গতকাল গিয়েছিলেন উত্তরবঙ্গের ইসলামপুরে। আর সোমবার নিজের জেলা। কার্যত গোটা বাংলা চষে বেড়াচ্ছেন শুভেন্দু। বাংলায় বিয়াল্লিশটি লোকসভার মধ্যে ১৩টি লোকসভার দায়িত্বে শুভেন্দু। তৃনমূলের নেতারাই বলছেন, উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিনবঙ্গ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর যদি কেউ ছুটে বেড়ান, তাহলে তিনি শুভেন্দুই।

Shares

Comments are closed.