বুধবার, ডিসেম্বর ১১
TheWall
TheWall

একা মুকুল রায় গোটা তৃণমূলটাকে তছনছ করে দিল, বিস্ফোরক শুভ্রাংশু

  • 13.4K
  •  
  •  
    13.4K
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভোটের আগে সাংবাদিক সম্মেলন করে বলেছিলেন, ব্যারাকপুর লোকসভার মধ্যে বীজপুর সবচেয়ে বেশি লিড দেবে দীনেশ ত্রিবেদীকে। আত্মবিশ্বাসের সুরে জানিয়েছিলেন, “দু’লক্ষের বেশি ভোটে জিতবেন দীনেশদা!” কিন্তু ভোটের ফলে উল্টে গেছে সব। শুক্রবার কাঁচড়াপাড়ার বাড়িতে সাংবাদিক সম্মেলন করে বীজপুরের বিধায়ক তথা মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায় হার স্বীকার করে নিলেন। সেই সঙ্গে জানিয়ে দিলেন, “আমার বাবা একা হাতে গোটা তৃণমূলটাকে তছনছ করে দিয়েছেন।”

এ দিন শুভ্রাংশু বলেন, “আমি ভুলে গেছিলাম বীজপুরটা আমার একার নয়। আমি যেমন এখানকার ভূমিপুত্র, আমার বাবা মুকুল রায়ও এখানকার ভূমিপুত্র। বাবার কাছে হেরে গেছি। মানুষ বেছে নিয়েছে বাবাকে।” একই সঙ্গে মুকুল-পুত্র জানিয়ে দেন তিনি এক্ষুণি দল ছাড়ছেন না। কিন্তু তাঁর মধ্যেও যে একটা দ্বিধা কাজ করছে তা-ও স্পষ্ট করেন। বলেন, “এখন আমি দল ছাড়ছি না। কিন্তু দল কি আমায় বিশ্বাস করে? এখন সব কিছুতেই একটা কোয়েশ্চেন মার্ক এসে যাচ্ছে।”

ভুলে গেলে চলবে না, শেষ দফার ভোটের আগে নির্বাচন কমিশনকে তুলোধনা করতে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক সময় বলেছিলেন, “গদ্দার মুকুল রায়টাই এ সব করাচ্ছে। গদ্দারের ছেলের জন্যই বীজপুরের আইসি বদল করা হয়েছে।”

ব্যারাকপুর কেন্দ্রে জনসভা করতে গিয়ে যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইচ্ছে করলে রোজ লক্ষ লক্ষ মুকুল রায় তৈরি করতে পারেন।” এ দিন অভিষেকের সেই কথাকেই কটাক্ষ করে মুকুল-পুত্র বলেন, “আমি আমার বাবার জন্য গর্বিত। কেউ কেউ বলেছিল, লক্ষ লক্ষ মুকুল রায় তৈরি করবে। কিন্তু যে লোকটা একা হাতে তৃণমূলকে দাঁড় করিয়েছিল, সেই লোকটা একা হাতে গোটা তৃণমূলটাকে তছনছ করে দিল।” হাসি হাসি মুখে শুভ্রাংশু যখন এ কথা বলছেন, তখন পিছনে দাঁড়ানো অনুগামীরা স্লোগান দিচ্ছেন, ‘মুকুল রায় জিন্দাবাদ।’

আরও পড়ুন:

বরাবর অধরা আসন ঘরে আনলেন শুভেন্দু, পশ্চিমে সব খোয়ালেন অভিষেক

Comments are closed.