মঙ্গলবার, মার্চ ২৬

নন্দীগ্রামের শহিদ সমাবেশের মঞ্চ থেকেই ভোটের প্রচার শুরু করলেন শুভেন্দু 

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মঙ্গলবার তৃণমূল নেত্রী প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর থেকেই জোরকদমে শুরু হয়ে গিয়েছে প্রচার। কোচবিহার থেকে শুরু করে কলকাতা, দেওয়াল লিখন থেকে শুরু করে দলীয় প্রার্থীকে নিয়ে পদযাত্রা, সব চলছে। বৃহস্পতিবার নন্দীগ্রামের শহিদ সমাবেশের মঞ্চ থেকে মেদিনীপুরে লোকসভা ভোটের প্রচার শুরু করে দিলেন পরিবেশ ও পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। উপস্থিত ছিলেন তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারী।

নন্দীগ্রামের সীতানন্দ কলেজ মাঠের জনসভায় প্রথমেই শহিদ বেদীতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শুভেন্দু। পরে নিজের বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রথমেই উপস্থিত জনতাকে ২০০৭ সালের ১৪ মার্চ ও তার পরবর্তী দিনগুলোর কথা মনে করিয়ে দেন তিনি। তিনি বলেন, “সেই সময় সিপিএম-এর হার্মাদ বাহিনীর অত্যাচারে যে রক্ত ঝরেছিল, তা এখনও এখানকার প্রতিটি মানুষের মনে টাটকা।” এই দিনগুলোতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তাঁদের লড়াইয়ের কথাও তুলে আনেন মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু।

পাশাপাশি এ দিনের মঞ্চ থেকে শুভেন্দু নিশানা করেন কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপিকে। তিনি বলেন, “নন্দীগ্রামের সব দলের মানুষকে আমি নিজের লোক বলে মনে করি। তাই কোনও প্রতিহিংসা আমি চাই না। কিন্তু যখন কেন্দ্রীয় বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে বিজেপি নেতারা ভোট চাইতে আসবেন, তাঁদের প্রশ্ন করবেন, নন্দীগ্রামের অসমাপ্ত রেল প্রকল্পের কী হলো? যে প্রকল্পের জন্য প্রায় ১১০০ যুবক নিজেদের জমি দিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন প্রায় ৬০০ যুবকের চাকরি হয়েছিল। বাকিদের কেন হলো না?” এমনকী এই মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি ঘোষণা করেন, শুধুমাত্র নন্দীগ্রাম থেকেই দিব্যেন্দু অধিকারী ১ লক্ষেরও বেশি লিড পাবেন।

অবশ্য এই সভার মধ্যে একটু হলেও তাল কাটল সভামঞ্চের পাশের ফ্লেক্স নিয়ে। সভা মঞ্চের পাশে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় শহিদ জওয়ানদের ছবি দিয়ে ফ্লেক্স করেন আয়োজকরা। এই ফ্লেক্স নিয়েই শুরু হয় বিতর্ক। বিজেপির তরফে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করা হয়। অবশ্য সভা শুরুর আগেই পলিথিন দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয় ফ্লেক্স। সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের সামনে তমলুকের তৃণমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারী বলেন, “স্থানীয় স্তরে ভুল বোঝাবুঝির ফলেই এটা হয়েছিল। জানতে পেরেই আমরা সেটা সরিয়ে নিয়েচ্ছি। পরবর্তীকালে এরকম আর হবে না।”

আরও পড়ুন

শুভ্রাংশুর গলায় অভিষেকের সুর, ‘বীজপুরে দীনেশদাকে সব চেয়ে বেশি লিড দেব’

Shares

Comments are closed.