শনিবার, জুলাই ২০

মুখ্যমন্ত্রীর কুরুচিকর ছবি ও চিঠি পাঠানো হলো তৃণমূল কাউন্সিলরের বাড়িতে, চাঞ্চল্য বিধাননগরে

দ্য ওয়াল ব্যুরো : আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের পর এ বার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে একটি কুরুচিকর ছবি ও চিঠি পাঠানোর অভিযোগ উঠল বিধাননগরে। বিধাননগরের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের পৌরমাতার বাড়ির ভিতর এই চিঠি পড়ে থাকতে দেখা যায়। এই চিঠি নিয়েই চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

জানা গিয়েছে, বিধাননগর পৌরনিগমের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের পৌরমাতা অনিতা মণ্ডল সোমবার বাড়ি ফিরে দেখেন তাঁর ঘরের ভিতর একটি খাম পড়ে আছে। খাম খুলে ভিতরে তিনি দেখেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কুরুচিকর ছবি দেওয়া একটি চিঠি।

সূত্রের খবর, চিঠিটি দেখে তিনি সঙ্গে সঙ্গে যান বিধাননগর পূর্ন থানায়। বিধাননগর পূর্ন থানায় এই বিষয়ে অভিযোগ করা হলে সেখানে পুলিশ জানায়, কিছুদিন আগে বিধাননগর উত্তর থানাতেও এই ধরণের একটি অভিযোগ জমা পড়েছে। সেটার তদন্ত চলছে।

এই বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে অনিতা মণ্ডল জানিয়েছেন, “আমি তো বুঝতেই পারছি না কারা এই কাজ করছে। চিঠির নীচে প্রেরক হিসেবে রাজীব কিল্লা নাম লেখা রয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা। তাঁকে এভাবে অপমান করার সাহস কীভাবে হয়। আমরা পুলিশকে জানিয়েছি। বলেছি যত দ্রুত সম্ভব ব্যবস্থা নিতে। আমরা চাই, যে বা যারা এই কাজ করেছে তাদের যেন কঠিন শাস্তি হয়। তার সঙ্গে এর পিছনে কোনও রাজনৈতিক দল যুক্ত আছে কিনা, সেটাও যন খতিয়ে দেখা হয়। কাল মুখ্যমন্ত্রীর ডাকা কাউন্সিলরদের বৈঠক আছে। সেখানে আমি এই বিষয় জানাবো।”

স্থানীয় এক তৃণমূল নেতা অবশ্য এই বিষয়ে সরাসরি বিজেপিকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘বিজেপি ইচ্ছে করে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীর ইমেজ খারাপ করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু তাঁরা জানেন না, এই রাজ্যের মানুষ মুখ্যমন্ত্রীকে মায়ের রূপে দেখেন। তাই এ সব করে কোনও লাভ নেই।’ অবশ্য বিধাননগরের এক বিজেপি নেতা এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেছেন, ‘এখন কিছু হলেই সেখানে বিজেপির জুজু দেখছে তৃণমূল। এগুলো সব ওদের দলীয় কোন্দল। এর সঙ্গে বিজেপির কোনও যোগ নেই।’

Comments are closed.