সোমবার, আগস্ট ১৯

বানতলায় ৮০ হাজার কোটি টাকার লগ্নি, ৫ লক্ষ কর্মসংস্থানের দাবি মমতার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বৃহস্পতিবার বানতলা লেদার কমপ্লেক্সে গিয়ে একগুচ্ছ নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানিয়ে দিলেন, শুধু এশিয়ার নয়, বিশ্বের বৃহত্তম চর্মশিল্প কারখানা হতে চলেছে বানতলা। ৮০ হাজার কোটি টাকা লগ্নি হতে চলেছে এখানে। এর ফলে ৫ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে বলেও দাবি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার বানতলাতে গিয়ে ১১টি নতুন প্রজেক্টের জন্য জমির কাগজ তুলে দেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী জানান, যাঁদের জমির কাগজ দেওয়া হলো, তাঁদের মধ্যে যেমন এ রাজ্যের লোক রয়েছে, তেমনই অনেকে কানপুর থেকেও এসেছেন। তাঁরা এ রাজ্যে লগ্নি করার উৎসাহ দেখিয়েছিলেন। তাই এই জমি তাঁদের দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ১৮৭টি নতুন ট্যানারির জন্য জমিও বরাদ্দ করা হয়েছে সেখানে।

এ দিন আটটি লেদার গুর্ডস পার্কের উদ্বোধন করেন মমতা। এ ছাড়াও মাইক্রো ট্রেনার্স হাব ও চর্ম শিল্পে ট্রেনিং সেন্টারেরও উদ্বোধন করেন তিনি। মমতা বলেন, “চর্মনগরীতে এত লগ্নি ও মানুষের কর্মসংস্থান হচ্ছে, তাই চর্মনগরীর নতুন নামকরণ করা হলো ‘কর্মদিগন্ত’। এখানে পুলিশ স্টেশনও তৈরি করেছি। পরিবেশ দূষিত করে নয়, আমরা সবদিকে ব্যবস্থা করেই উৎপাদন করবো। বিশ্বের সবথেকে বড় মার্কেট হবে কলকাতা।”

এ দিনের অনুষ্ঠান থেকে কেন্দ্রের দিকেও আঙুল তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “সারা দেশে যখন কর্মসংস্থান হচ্ছে না, তখন বাংলা অনেকটাই এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে ২ কোটি মানুষের চাকরি গেছে। আমরা এখানে ৪০ শতাংশ বেকারত্ব দূর করতে পেরেছি।”

চর্ম কারখানার ব্যবসায়ী এবং শ্রমিকদের যাতায়াতের কথা মাথায় রেখে এ দিন ৬ টি বাসের উদ্বোধন করেন মমতা। জানান, এখানে কর্মদিগন্ত নামে একটা বাসস্ট্যান্ড তৈরি করা হবে। সেখান থেকে বিভিন্ন রুটের বাস চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শিগগির তা হয়ে যাবে।

Comments are closed.