রবিবার, নভেম্বর ১৭

আর ৯০ কিমি দূরে বুলবুল, জানুন ঘূর্ণিঝড়ের শেষ আপডেট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ১৩৫ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। তবে আছড়ে পড়ার আগে শক্তি কিছুটা কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। যদিও তাতেও ঘণ্টায় প্রায় ১২০ কিলোমিটার বেগে বুলবুল আছড়ে পড়বে বলেই পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের। সন্ধের মধ্যেই বুলবুল আছড়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

উপকূলের জেলাগুলিতে জারি হয়েছে চরম সতর্কতা। প্রায় ৮৪ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া যাওয়া হয়েছে নিরাপদ স্থানে। কলকাতা সহ পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, দুই চব্বিশ পরগনায় শনিবার সকাল থেকেই চলছে নাগাড়ে বর্ষণ। সঙ্গে ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বইছে ঝোড়ো হাওয়া। বন্ধ রয়েছে কলকাতা-হাওড়া ফেরি পরিষেবা। হাওড়া-বাবুঘাট, বাগবাজার, আহিরীটোলা ছাড়াও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং হুগলি জেলাতেও বন্ধ রয়েছে ফেরিঘাট। কড়া নজরদারি চলছে দিঘা, মন্দারমনি এবং তাজপুরে। উপকূল এলাকায় বেশি প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে বিপর্যয় ঠেকাতে তৈরি প্রশাসন। বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে সুন্দরবনে। দশ বছর আগে ২০০৯ সালে আয়লা হয়েছিল পশ্চিমবঙ্গে। তছনছ হয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার উপকূল সংলগ্ন এলাকা। আয়লার দাপটে বিধ্বস্ত হয়ে গিয়েছিল সুন্দরবনও। এবার বিপর্যয় এড়াতে তৎপর প্রশাসন। বিভিন্ন জায়গায় মাইকিং করে চলছে প্রচার। কড়া নজরদারি চলছে উপকূল সংলগ্ন এলাকায়। তৈরি বিপর্যয় মোকাবিলাকারী দলও।

তবে শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয় বাংলাদেশের উপকূলেও প্রভাব ফেলবে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সময় যত এগোচ্ছে এবং দূরত্ব যত কমছে ততই শক্তিশালী হচ্ছে এই ঘূর্ণিঝড়। তবে আছড়ে পড়ার আগে অন্যান্য ঘূর্ণিঝড়ের মতোই শক্তি কমবে বুলবুলের, তেমনটাই মত আবহবিদদের। কারণ সাধারণত ল্যান্ডফলের সময় সব সাইক্লোনেরই গতিবেগ এবং শক্তি কিছুটা হলেও কমে যায়।

Comments are closed.