শনিবার, মার্চ ২৩

গণপিটুনি রুখতে পুলিশ প্রশাসনের উচ্চপর্যায়ের বৈঠক নবান্নে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গুজবের জেরে গণপিটুনি ঠেকাতে মরিয়া রাজ্য প্রশাসন। শনিবার নবান্নে সে ব্যাপারেই ডাকা হয়েছে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক। রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র, সমস্ত জেলার পুলিশ সুপার এবং কমিশনারদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা বলবেন। বৈঠকে উপস্থিত থাকার কথা কলকাতা, হাওড়া এবং বিধাননগরের পুলিশ কমিশনারদের।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কয়েকদিন ধরেই এ ব্যাপারে সরব। পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন যেখানে গুজব রটিয়ে এই ধরনের ঘটনা ঘটানো হচ্ছে, সেখানেই যেন ব্যবস্থা নেওয়া হয়। একেবারে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মমতা। কিন্তু তাতেও যে পরিস্থতির খুব বদল হয়েছে তা নয়। গতকালই হাওড়ায় একটি ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্য তৈরি হয়। ছেলেধরা সন্দেহে এক ব্যক্তিকে ধাওয়া করতে গিয়ে একদল লোক ঢুকে পড়ে একটি আবাসনে। পরিস্থিতি এমন জায়গায় যায় যে, সেখানে ছুটতে হয় রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের হাওড়া জেলা সভাপতি অরূপ রায়কে।

শুক্রবার তারকেশ্বরের সরকারি অনুষ্ঠান থেকেও এ ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি আপনাদের কাছে হাত জোড় করে অনুরোধ করছি। দয়া করে কেউ গুজবে কান দেবেন না।” প্রসঙ্গত, কাশ্মীরি ছাত্রদের উপর হামলার ঘটনা নিয়ে শুক্রবার সকালেই দেশের শীর্ষ আদালত দশটি রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সসরকারকে সতর্ক করে বলেছে, বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখতে। সেই তালিকায় নাম রয়েছে বাংলারও।

কলকাতার পুলিশ কমিশনার পদে দায়িত্ব নিয়ে অনুজ শর্মা জানিয়ে দিয়েছিলেন, কাশ্মীরিরা শহরের যেখানে যেখানে থাকেন সেখানে সেখানে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শুক্রবার সন্ধেবেলাও কলকাতার নতুন নগরপাল জানিয়েছিলেন ২২টি ঘটনায় ৪০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিদ্বেষ ছড়িয়ে যে ঘটনা ঘটছে তা রুখতেও প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে জানিয়েছিলেন অনুজ। আর শনিবার বৈঠক করে গণপিটুনির ঢেউ রুখতে জেলায় জেলায় সেই বার্তা পৌঁছে দিতে চাইছে নবান্ন।

Shares

Comments are closed.