রবিবার, অক্টোবর ২০

সব রেকর্ড ভেঙে গেল, দিল্লির তাপমাত্রা ছুঁল ৪৮! পিছিয়ে নেই এ রাজ্যও, জারি তাপপ্রবাহের সতর্কতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজধানী শহরে পারদ ছুঁয়েছে ৪৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বেসরকারি সংস্থা স্কাইমেট জানিয়েছে, ইতিহাসে এই প্রথম এত গরম পড়েছে দিল্লিতে। ঘেমেনেয়ে একসা হচ্ছেন রাজধানীর বাসিন্দারা। পিছিয়ে নেই কলকাতাও। আগামী তিন দিন এই শহরেও তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। অতএব গরমে পোড়ার পালা এ বার বঙ্গবাসীরও।

বঙ্গে এখনও দেখা নেই বর্ষার। কবে বর্ষা রাজ্যে ঢুকবে সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিত করে কিছু পূর্বাভাস দিতে পারেনি আলিপুর আবহাওয়া দফতর। কিন্তু এর মধ্যেই কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের ৬ থেকে ৭টা জেলায় তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে হাওয়া অফিস। কলকাতা ছাড়াও, পশ্চিম মেদিনীপুর, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়াতেও তাপপ্রবাহ হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা এখন প্রায় নেই বললেই চলে। বরং তাপমাত্রা আরও ২ থেকে ৩ ডিগ্রি বাড়বে। কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ,পূর্ব মেদিনীপুরেও ভ্যপসা গরম ও আদ্রতা জনিত অস্বস্তি বজায় থাকবে আগামী ৭২ ঘণ্টা। পশ্চিমের জেলাগুলাতে বিশেষ বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর এবং বীরভূমে তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর।

বঙ্গোপসাগরে কোনো ঘূর্ণাবর্ত নেই। তাই বর্ষা দেরিতেই আসবে। আরব সাগরে একটা নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে। তবে তার প্রভাবে সাইক্লোন হলেই সেটার প্রভাব বঙ্গে পড়বে কি না তা এখনই বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন আবহবিদরা। আগামী তিনদিনে তাপপ্রবাহে পুড়বে শহর। পারদ থাকবে ৩৭ কিংবা ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। সঙ্গে বাতাসে অতিরিক্ত জলীয় বাষ্পের কারণে থাকবে চরম আর্দ্রতা। যার ফলে ভ্যাপসা গরমে হাঁসফাঁস করবেন শহরবাসী।

চলতি মরসুমে কেরলেও বর্ষা ঢুকেছে নির্ধারিত সময়ের তুলনায় প্রায় এক সপ্তাহ দেরিতে। আইএমডি আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল যে এ বছর দেশে বর্ষা আসবে দেরিতে। সেই সময় আলিপুর আবহাওয়া দফতরও জানিয়েছিল বঙ্গেও এ বছর বর্ষা আসতে দেরি হতে পারে। সেই পূর্বাভাসই অক্ষরে অক্ষরে মিলে গেল বলে মনে করছেন আবহবিদদের একাংশ।

Comments are closed.