রবিবার, নভেম্বর ১৭

কাশ্মীর নিয়ে উদ্বিগ্ন মমতা, ১৩১ শ্রমিককে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে রাজ্যে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জম্মু-কাশ্মীরের কুলগামে কর্মরত মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির পাঁচ শ্রমিককে হত্যা করেছে জঙ্গিরা। তারপর থেকেই উপত্যকায় কাজের সূত্রে যাওয়া মানুষরা আতঙ্কে রয়েছেন। বাংলার শ্রমিকদের জন্য চিন্তিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তাই সেখান থেকে তড়িঘড়ি ১৩১ জন শ্রমিককে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে রাজ্যে। পুরোটাই হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর তত্ত্বাবধানে।

নবান্ন সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার রাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খবর পান জম্মু-কাশ্মীরের কুলগামের কাছে বাংলার ন’জন শ্রমিক আটকে পড়েছেন। তাঁদের কাছে টাকা শেষ হয়ে গিয়েছে। কারও সাহায্যও পাচ্ছেন না তাঁরা। সঙ্গে সঙ্গে রাজ্য পুলিশের ডিজির সঙ্গে কথা বলেন মমতা। ডিজি কথা বলেন জম্মু-কাশ্মীরের ডিজির সঙ্গে। পুরো বিষয়টা খুলে বলা হয়। তারপরে শুক্রবার সকালের মধ্যে ন’জনকে শ্রীনগরে নিয়ে আসা হয়েছে বলে খবর।

ইতিমধ্যেই জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকা থেকে ১২২ জন শ্রমিক রাজ্যে ফেরার আর্জি জানিয়েছেন বলে খবর। নবান্ন সূত্রে জানানো হয়েছে, এই ১৩১ জন শ্রমিককেই রাজ্যে ফিরিয়ে আনা হবে। তাঁদের সবাইকে বাসে করে জম্মু নিয়ে আসা হচ্ছে। তারপরে রেলমন্ত্রককে জানিয়ে ট্রেনে বিশেষ কামরা বুক করে সবাইকে ফিরিয়ে আনা হবে রাজ্যে।

পুরো বিষয়টির উপর নজর রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই। গতকাল রাত থেকে সবার সঙ্গে যোগাযোগ করছেন তিনি। শুক্রবার সকালেই কাশ্মীর উড়ে গিয়েছেন রাজ্য পুলিশের দুই আধিকারিক। এঁরা হলেন এডিজি দক্ষিণবঙ্গ সঞ্জয় সিং ও সিআইডি এসএসবি অনুপ জশপাল। সেখানে গিয়ে পুরো প্রক্রিয়া দেখভাল করছেন তাঁরা।

নবান্নের তরফে আরও জানানো হয়েছে, এরপরেই বেশ কিছু জুনিয়র পুলিশ অফিসারকে জম্মু-কাশ্মীর পাঠানো হবে। এ রাজ্যের আরও কোনও শ্রমিক রাজ্যে ফিরে আসতে চাইলে তাঁদের সব ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার।

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯–এ প্রকাশিত গল্প

Comments are closed.