মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩

#Breaking : মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় তদন্তভার নিল সিআইডি, গ্রেফতার ৪ পড়ুয়া-সহ ৫

দ্য ওয়াল ব্যুরো : পরপর চারদিন। বাংলা থেকে শুরু হয়ে ইংরাজি, ইতিহাস, ভূগোল, পরীক্ষা শুরু হওয়ার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই ফাঁস হয়েছে মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র। ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে। ইংরাজি পরীক্ষার দিনই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তদন্ত হবে। যারা দোষী, তারা শাস্তি পাবে। তারপরেই এই প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্তভার নিল সিআইডি। ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে চার পড়ুয়া-সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে রাজ্যের গোয়েন্দা সংস্থা।

সূত্রের খবর, বিধাননগর সাইবার থানায় দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতেই এই তদন্তের ভার নিয়েছে সিআইডি। ইতিমধ্যেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা হলো, মালদহের কালিয়াচকের বাসিন্দা শাহাবুল আমির ( ১৮ ), কাটোয়ার কৈথান হাটপাড়ার বাসিন্দা শাহবাজ মণ্ডল ( ১৮ ) ও হুগলির পাণ্ডুয়ার বাসিন্দা সাজিদুর রহমান। শাহাবুল ও শাহবাজ দু’জনেই ক্লাস টুয়েলভ-এর পড়ুয়া। এছাড়াও আরও দুই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের পরিচয় জানানো হয়নি।

সিআইডি সূত্রে খবর, এই পাঁচজন একটা হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ খুলে তার মাধ্যমে প্রশ্ন ফাঁস করত। পরীক্ষা শুরু হওয়ার পরেই ফোনে প্রশ্নের ছবি পাঠিয়ে দেওয়া হতো। তারপরেই উত্তর চলে আসত ফোনেই। এই পাঁচজন ছাড়াও আরও অনেকে এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলেই মনে করছে সিআইডি। তাদের খোঁজ শুরু হয়েছে। সিআইডি’র তরফে জানানো হয়েছে, শিগগির বাকিদেরকেও আটক করা হবে।

প্রসঙ্গত, ১২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রথম দিন থেকেই শুরু হয় এই প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা। এই ঘটনা সামনে আসার পর প্রতিবাদ করে বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন। রাস্তায় নেমে প্রতিবাদের পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি পাঠানো হয় এস.এফ.আই ও ডি.ওয়াই.এফ.আই-এর তরফে। প্রতিবাদ জানিয়েছে ছাত্র পরিষদও। বিরোধী দলের অনেক নেতা এই প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

এই ঘটনায় শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও যথেষ্ট ক্ষুব্ধ। তিনি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছেন। এছাড়াও এই ঘটনায় সংবাদমাধ্যমের অতি-সক্রিয়তার উপরেও আঙুল তুলেছেন শিক্ষামন্ত্রী। বলেছিলেন, ইতিহাস পরীক্ষার দিন থেকে কোনও সাংবাদিক সম্মেলন হবে না। স্পষ্ট ভাষায় পার্থবাবু জানিয়েছিলেন, পরীক্ষাকেন্দ্রে কোনও পরীক্ষার্থী কোনও ইলেক্ট্রনিক গ্যাজেট নিয়ে ধরা পড়লে তার বিরুদ্ধে চরম ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তারপরেই এই তদন্তভার নেয় সিআইডি।

আরও পড়ুন

#Breaking : রাতভর জঙ্গিদের সঙ্গে গুলির লড়াই, ফের পুলওয়ামাতেই শহিদ মেজর-সহ ৪ জওয়ান, নিহত আরও ১

 

Shares

Comments are closed.