শনিবার, নভেম্বর ১৬

বর্ধমানে আলুর দাম না পেয়ে আত্মঘাতী চাষি

দ্য ওয়াল ব্যুরো, বর্ধমান: গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন জামালপুরের এক আলুচাষি। নাম সেখ গোলাম আম্বিয়া মল্লিক(৪২)। তাঁর বাবা গোলাম মোর্তেজা মল্লিক জানান, আলু চাষের জন্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পাশাপাশি সমবায় ব্যাঙ্ক থেকেও মোটা অঙ্কের টাকা ঋণ নিয়েছিলেন আম্বিয়া। সোনা বন্ধক রেখেও কিছু টাকা ঋণ করেছিলেন। এছাড়াও চাষের জন্য সার, কীটনাশকের দোকানেও ধার ছিল। আলুর দাম না পাওয়ায় আত্মঘাতী হয়েছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়িতে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হন তিনি। জানা গিয়েছে গত তিন বছর ধরে প্রায় ১৫ বিঘা জমিতে আলু চাষ করছেন তিনি। মৃতার বাবা আরও জানান, সব নিয়ে ঋণের পরিমাণ প্রায় তিন লক্ষ টাকা। হিমঘরে শেষ পর্যন্ত তাঁর চারশো বস্তা আলু মজুত ছিল। সেই মজুত আলু ছাড়ানোর শেষ তারিখ পেরিয়ে যাওয়ার পর হিমঘর কর্তৃপক্ষ আলু নিলাম করে দেয়। এরপরেই সেখ গোলাম আম্বিয়া মল্লিক একেবারে ভেঙে পড়েন। তারপরেই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানিয়েছে পরিবার।

তবে ঋণের দায়ে আলুচাষির আত্মহত্যা প্রসঙ্গে এখনও মুখ খোলেনি প্রশাসন। জামালপুরের বিডিও সুব্রত মল্লিক শুধু বলেন, “একজন চাষি আত্মঘাতী হয়েছেন। তবে পুলিশ তদন্ত করে গোটা বিষয়টি দেখছে।” অন্যদিকে পাঁচড়া পঞ্চায়েতের প্রধান লালু হেমব্রম ও পঞ্চায়েত সদস্য তপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান মৃত আম্বিয়া আলু চাষ করতেন।

Comments are closed.