শুক্রবার, নভেম্বর ১৫

#Breaking: ধৃত কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর করল পুরুলিয়া জেলা আদালত

দ্য ওয়াল ব্যুরো,পুরুলিয়া: সাইবার অপরাধের অভিযোগে ধৃত প্রদেশ কংগ্রেসের অন্যতম মুখপাত্র সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর করল আদালত। তবে শর্তসাপেক্ষে এই জামিন মঞ্জুর করেছে পুরুলিয়া জেলা আদালত। সপ্তাহে একদিন তদন্তকারী অফিসারের সঙ্গে দেখা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সন্ময়বাবুকে।

সন্ময়বাবু জামিন পাওয়ার পরে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র বলেন, “সত্যের জয় হল। পুরুলিয়া কোর্টের মাননীয় বিচারক কংগ্রেসের মুখপাত্র সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের জামিন মঞ্জুর করেছেন। আমরা প্রথম থেকেই আদালতের উপর ভরসা রেখেছিলাম। সন্ময়ের উপর যেভাবে পুলিশের সঙ্গে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা আক্রমণ করেছিল তাদের বিরুদ্ধে আইনের পথে দল লড়বে। সেইসঙ্গেই রাজ্য সরকারের হাতে গণতন্ত্র হত্যার বিরুদ্ধে বামপন্থী দলগুলির সঙ্গে একসাথে সারা রাজ্যে পথে নেমে লড়াই হবে।”

গত ২৩ সেপ্টেম্বর পুরুলিয়ার সাইবার ক্রাইম থানায় সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন আইনজীবী তথা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পুরুলিয়া জেলার কার্যকরি সভাপতি প্রণব দেওঘরিয়া। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কুরুচিকর ও ভিত্তিহীন বক্তব্যের অভিযোগ আনা হয় সন্ময়বাবুর বিরুদ্ধে। তার ভিত্তিতেই পুরুলিয়া জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম শাখা বৃহস্পতিবার এই কংগ্রেস নেতাকে আটক করে।

সন্ময়বাবুর বিরুদ্ধে জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা, কুৎসা করা, তাঁদের হেয় করা-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ। মামলা হয় তথ্যপ্রযুক্তি আইনেও।

শুক্রবার দুপুরে এই কংগ্রেস নেতাকে জেলা আদালতে তোলা হলে বিচারক রিম্পা রায় দু’দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। খারিজ করে দেওয়া হয় সন্ময়বাবুর জামিনের আবেদন।

সন্ময়বাবু গ্রেফতার হওয়ার পর রাজ্যজুড়ে একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। কংগ্রেস অভিযোগ করে রাজনৈতিক স্বার্থেই গ্রেফতার করানো হয়েছে সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আদালতে ফের জামিনের জন্য আবেদন করেন সন্ময়বাবু। অবশেষে রবিবার শর্তসাপেক্ষে তাঁর জামিন মঞ্জুর করে আদালত।

পড়ুন, দ্য ওয়ালের পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…..

আগে তো আমাদের বাঙালি হতে হবে, তারপরই না ফিউশন: সনজীদা খাতুন

Comments are closed.