সোমবার, অক্টোবর ১৪

চাওমিনে পেঁয়াজ চাওয়ায় বাবা-মেয়েকে মারধর দোকানদারের, অভিযোগ দায়ের থানায়

  • 174
  •  
  •  
    174
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিনদিন বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। আর চাওমিন খেতে গিয়ে কিনা পেঁয়াজ চাওয়া! এই অপরাধেই বাবা-মেয়েকে বেধড়ক মারধর করল দোকানদার। হাসপাতালে ভর্তি তাঁরা। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে দোকানদারের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং থানার নবারুণ ক্লাব পুজো মণ্ডপের সামনে। পুলিশ সূত্রে খবর, ক্যানিংয়ে জীবনতলা থানার ফেয়ারলির বাসিন্দা ৫৩ বছরের শচীন রায় তাঁর মেয়ে বছর ২৭-এর সুরভীকে নিয়ে সেখানে ঠাকুর দেখতে যান। পুজো মণ্ডপের সামনে একটা চাওমিনের দোকানে চাওমিন খেতে যান তাঁরা। তারপরেই বিপত্তি।

পুলিশ সূত্রে খবর, পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়াতে চাওমিনে পেঁয়াজ দেননি দোকানদার। দোকানদারের কাছে পেঁয়াজ চান সুরভী। এই নিয়েই দুজনের মধ্যে বচসা শুরু হয়। তারপরেই ওই দোকানদার সুরভীর মাথার চুল ধরে তাঁকে মারেন বলে অভিযোগ। এই দৃশ্য দেখে থামাতে যান তাঁর বাবা। তখন তাঁকেও রাস্তায় ফেলে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। গরম খুন্তি দিয়ে মারধর করায় শচীনবাবু ও সুরভী দুজনেই মারাত্মক আহত হয় বলে খবর।

তারপরেই স্থানীয় মানুষজনরা এগিয়ে এলে পালিয়ে যান ওই দোকানদার। দুজনকেই ভর্তি করা হয় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে। আপাতত সেখানেই ভর্তি রয়েছেন তাঁরা। ওই দোকানদারের বিরুদ্ধে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। দোকানদার পলাতক। তাঁর খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

 

Comments are closed.