শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১

সেমিফাইনালের আগে কী বলছে ম্যাঞ্চেস্টারের আকাশ!

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গ্রুপ লিগে ভেস্তে গিয়েছিল এই দুই দলের খেলা। ফলে প্র্যাকটিস ম্যাচ বাদ দিলে চলতি বিশ্বকাপে এই প্রথম মুখোমুখি হচ্ছে ভারত-নিউজিল্যান্ড। আর সেই ম্যাচেও কিনা বৃষ্টির সম্ভাবনা। ম্যাঞ্চেস্টারের আকাশে কালো করে রয়েছে মেঘ। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তাহলে কি ফের বৃষ্টিতে ভেস্তে যাবে ভারত-নিউজিল্যান্ড খেলা।

ইংল্যান্ডের আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে সারাদিন ধরেই মেঘ থাকবে আকাশে। মাঝেমধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু ম্যাচ হয়তো ভেস্তে যাবে না। তবে মাঝেমধ্যে বন্ধ হতে পারে। আর অ্যাকুওয়েদার ঘণ্টা ধরে বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে। তাদের মতে মঙ্গলবার ভারতীয় সময় সকাল ১১টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু তারপর বেশ কিছুক্ষণ বৃষ্টি হবে না বলেই জানিয়েছে তারা। দুপুর ১টা থেকে ৪টে পর্যন্ত বৃষ্টি না হলেও আকাশে কালো মেঘ থাকবে। সন্ধেবেলা ৬টা থেকে ৭টা পর্যন্ত ফের এক দফা বৃষ্টি হতে পারে।

এই দফায় দফায় বৃষ্টি হলে খেলার মাঝে বিঘ্ন ঘটতে পারে। ফলে বেশি সমস্যায় পড়তে পারেন ব্যাটসম্যানরা। অন্যদিকে সোমবার রাত থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে ম্যাঞ্চেস্টারে। ফলে পিচ কভারের নীচে ঢাকা রয়েছে। এতক্ষণ কভারের নীচে ঢাকা থাকার পর সেই পিচ কীরকম খেলবে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। ওভারকাস্ট কন্ডিশনে টসে জিতলে আগে ব্যাট না বল, তা নিয়েও সমস্যায় ভুগবেন অধিনায়করা।

এই ম্যাঞ্চেস্টারে এর আগে দুটো ম্যাচ খেলেছে ভারত। গ্রুপলিগে পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে। দুটো ম্যাচেই আগে ব্যাট করে জিতেছিল ভারত। পাকিস্তান ম্যাচের দিন এরকমই বৃষ্টির সম্ভাবনা ও ওভারকাস্ট কন্ডিশন থাকায় টসে জিতে বলের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। সেই সিদ্ধান্ত কিন্তু ব্যুমেরাং হয়ে দেখা দেয়। তাই ওভারকাস্ট কন্ডিশন হলেও টসে জিতলে হয়তো ব্যাটিংয়ের দিকেই যাবেন অধিনায়করা।

অবশ্য নিউজিল্যান্ডের বোলিং আক্রমণ মূলত পেসের উপর নির্ভর করে। আবহাওয়া সঙ্গে দিলে ট্রেন্ট বোল্ট, লকি ফার্গুসনরা কী করতে পারেন, তা আগেও দেখা গিয়েছে। প্রস্তুতি ম্যাচেও কিন্তু এই আবহাওয়াকে কাজে লাগিয়েই ভারতকে নাস্তানাবুদ করেছিলেন কিউয়ি পেসাররা। সেই ব্যাপারটাও মাথায় রাখবেন উইলিয়ামসন।

Comments are closed.