সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩

ড্রেসিং রুমে বসে ‘ইগো ঝেড়ে ফেলার’ বই পড়ছেন বিরাট, শোরগোল নেট দুনিয়ায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ক্যারিবিয়ান সিরিজে ওয়ান ডে টুর্নামেন্টে জোড়া সেঞ্চুরি করলেও টেস্ট সিরিজের শুরুটা ভাল হয়নি ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির। প্রথম ইনিংসে মাত্র ৯ রানে আউট হয়েছেন। কিন্তু তারপরেও খবরের শিরোনামে বিরাট। তবে খেলার জন্য নয়। ড্রেসিং রুমে বসে বই পড়ার জন্য।

টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ভারতের ইনিংস চলাকালীন দেখা যায়, ড্রেসিং রুমে বসে একটা বই পড়ছেন বিরাট। ক্যামেরায় ধরা পড়ে বই-এর নামও। স্টিভেন সিলভেস্টের-এর লেখা ‘ডিটক্স ইয়োর ইগো, সেভেন ইজি স্টেপস টু অ্যাচিভ ফ্রিডম, হ্যাপিনেস অ্যান্ড সাকসেস ইন ইয়োর লাইফ’ পড়ছিলেন কোহলি। আর বিরাটের হাতে এই বই দেখার পড় থেকেই শোরগোল সোশ্যাল মিডিয়ায়। মজার কমেন্টে ভরে গিয়েছে টুইটার।

সবাই সম্প্রতি বিরাট ও রোহিতের মধ্যে গণ্ডগোলের বিষয়কে টেনে নিয়ে এসেছেন। তাঁদের বক্তব্য, রোহিতের সঙ্গে সাম্প্রতিক সমস্যার পর নিজের ইগো ঝেড়ে ফেলে নিজেকে ভালো রাখার জন্যই এই বই পড়ছেন বিরাট। কেউ আবার বলছেন, ভারতের অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর থেকে অনেক প্রাক্তন ক্রিকেটার মাঠের মধ্যে বিরাটের ঔদ্ধত্যের সমালোচনা করেছেন। বিরাট নিজেও বুঝতে পারছিলেন, এই মনোভাবের ফলে তাঁর কেরিয়ার ও দলের উপর প্রভাব পড়ছে। আর তাই ইগো কমাতে এই বই পড়ছেন তিনি।

তবে সবাই যে এই ধরণের মন্তব্য করেছেন, তা নয়। কেউ কেউ মজার মন্তব্যও করেছেন। তাঁদের বক্তব্য, বিরাটের হাতে এই বই দেখার পরে বই-এর বিক্রি হুহু করে বেড়ে যাবে। তাতে আখেরে লাভ হবে লেখকের। তাই বিরাটের হাতে ওই বই দেখে সবথেকে বেশি আনন্দ পেয়েছিলেন স্টিভেন সিলভেস্টের।

তবে বিরাটই প্রথম নয়, এর আগেও অনেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারকে এই বই পড়তে দেখা গিয়েছে। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা বলেন, টেস্ট ম্যাচের সময় স্ট্রেস কমাতে অনেকেই এই বই-এর সাহায্য নিয়ে থাকেন। তবে বিরাট যে কারণেই এই বই পড়ুন না কেন, রাতারাতি তা ট্রেন্ডিং সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Comments are closed.