শুক্রবার, জানুয়ারি ১৮

‘হার্দিক-রাহুলের মন্তব্য ওদের ব্যক্তিগত, দল এতে সমর্থন করে না’, মুখ খুললেন বিরাট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অবশেষে মুখ খুললেন বিরাট কোহলি। হার্দিক পান্ড্য ও লোকেশ রাহুলের বিতর্কিত মন্তব্যের পর তাঁদের শো’কজ করেছে বোর্ড। প্রশাসনিক কমিটির তরফে তাঁদের দু ম্যাচ নির্বাসিত করার প্রস্তাবও দেওয়া হয়েছে। তবে এই বিষয়ে এতদিন অধিনায়ক বিরাট কোহলির কাছ থেকে কোনও মন্তব্য আসেনি। এ বার মন্তব্য করলেন কোহলি।

শনিবার সিডনিতে প্রথম একদিনের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হচ্ছেন বিরাটরা। তার আগে সাংবাদিক সম্মেলনে এলে বিরাটকে হার্দিক ও রাহুলের মন্তব্যের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়। এই প্রশ্নের উত্তরে বিরাট বলেন, “ওই শোতে হার্দিক ও রাহুল যে মন্তব্য করেছে, সেটা পুরোপুরি ওদের ব্যক্তিগত মন্তব্য। এর সঙ্গে দলের কারও চিন্তাভাবনার কোনও যোগ নেই।”

তখন কোহলিকে প্রশ্ন করা হয়, রাহুল, পান্ড্যকে তো দু ম্যাচের জন্য নির্বাসিত করা হতে পারে। এতে দলের খেলার উপর কোনও প্রভাব পড়বে কি? এই প্রশ্নের উত্তরে ভারত অধিনায়ক বলেন, “ভারতীয় ক্রিকেটের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বলতে পারি, এতে আমাদের ড্রেসিং রুমে কোনও প্রভাব পড়বে না। এতে আমাদের খেলার ফোকাসের উপরেও কোনও প্রভাব পড়বে না। হার্দিক ও রাহুলকে নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তের পরেই আমরা আমাদের দলের কম্বিনেশন ঠিক করব।”

তবে এরপর কোহলির মুখে দুই খেলোয়াড়কে নিয়ে সমালোচনাও শোনা যায়। তিনি বলেন, “ওদের বোঝা উচিত, যে ওরা কী ভুল করেছে। এই ঘটনা ওদের জোরে ধাক্কা দেবে। তবে এটা থেকে শিক্ষা নিয়ে ভবিষ্যতে এই ধরণের ভুল থেকে দূরে থাকতে পারবে ওরা।”

প্রযোজক-পরিচালক করণ জোহরের চ্যাট শো ‘কফি উইথ করণ’-এ এসে বিতর্কিত মন্তব্যের পর বোর্ডের প্রশাসনিক কমিটির প্রধান বিনোদ রাই দুই ক্রিকেটারকে দু’ম্যাচ নির্বাসনের পক্ষে সওয়াল করেছেন। প্রশাসনিক কমিটির অন্য সদস্য ডায়না এডুলজি আবার এই ঘটনাকে বিসিসিআইয়ের লিগাল সেলে পাঠানোর পক্ষপাতি।

বৃহস্পতিবার বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অনিরুদ্ধ চৌধুরী একটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। জানা গিয়েছে, ওই অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য রাহুল ও হার্দিক কারও কাছে অনুমতি নিয়েছিলেন কিনা, বা নিয়ে থাকলেও কে অনুমতি দিয়েছেন, সে সব নিয়েই খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। কারণ বোর্ডের নিয়ম, চুক্তির মধ্যে থাকা ক্রিকেটারদের কোনও শোয়ে অংশ নিতে গেলে তার আগে বোর্ডের অনুমতির দরকার হয়। সেইসব খোঁজ খবর করেই দুই ক্রিকেটারের শাস্তি হবে কি হবে না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেই বিসিসিআই সূত্রে খবর।

Shares

Comments are closed.