রবিবার, নভেম্বর ১৭

ধোনির ব্যাপারে সৌরভের সঙ্গে কথা হয়েছে না কি, জবাব দিতে গিয়ে হেসে গড়ালেন বিরাট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফুরফুরে মেজাজে ছিলেন তিনি। দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে দুরমুশ করে ছেড়েছেন। এই পারফরম্যান্সের পর ফুরফুরে মেজাজেই থাকার কথা। কিন্তু মঙ্গলবার মহেন্দ্র সিং ধোনি আর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে প্রশ্ন করতেই হেসে লুটোপুটি খেলেন বিরাট।

এ দিন দু’ওভারের মধ্যেই প্রোটিয়াদের দু’উইকেট ফেলে দিয়ে খেলা শেষ করে দেয় ভারত। রাঁচির স্টেডিয়ামে তখনও অনেক দর্শক ঢোকেনইনি। গ্যালারিতে পা দিয়ে দেখেন রোহিত শর্মা ম্যান অফ দ্য সিরিজের পুরস্কার নিচ্ছেন। খেলা শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাটকে প্রশ্ন করা হয়, ধোনির ব্যাপারে নতুন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে কোনও কথা হল নাকি? এই প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়েই হেসে কার্যত চেয়ার থেকে পড়ে যাওয়ার মতো অবস্থা হয় বিরাটের।

তারপর হাসি থামিয়ে ক্যাপ্টেনের জবাব, “আমি তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছি। এটা দারুণ ব্যাপার যে দাদা বোর্ড সভাপতি হয়েছেন। কিন্তু তাঁর সঙ্গে ধোনির ব্যাপারে আমার কোনও কথাই হয়নি। তিনি ডাকলে নিশ্চয়ই আমি কথা বলব। তখন বললে তারপর!”

এর আগেই সৌরভ বলেছেন, ধোনির ব্যাপারে তিনি নির্বাচকদের সঙ্গে কথা বলবেন। জানতে চাইবেন, তাঁরা বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে নিয়ে কী ভাবছেন। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও ধোনির টিমে ফেরা অনিশ্চিত। সোমবার মহারাজ বলেছেন ২৩ তারিখ বোর্ড সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পরের দিনই অর্থাৎ ২৪ অক্টোবর বিরাটের সঙ্গে কথা বলবেন আসন্ন সিরিজ নিয়ে।

সন্দেহ নেই, ধোনির শহরে বসে বিতর্ক এড়িয়ে যেতে চেয়েছেন বিরাট। কারণ এদিনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিশ্রামে থাকা ধোনি ভারতীয় ড্রেসিংরুমে সতীর্থদের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। এমনিতে ভারতীয় ক্রিকেট বা বোর্ড রাজনীতিতে সৌরভ-ধোনি মানেই একটা মুচমুচে ব্যাপার। কিন্তু বিরাট অট্টহাসি হেসে সেটাকেই যেন এ দিন মিইয়ে দিতে চাইলেন।

পড়ুন দ্য ওয়াল-এর পুজোসংখ্যার বিশেষ লেখা…

Comments are closed.