সোমবার, অক্টোবর ২১

বৃষ্টির জেরে শেষ প্রথম দিনের খেলা, রোহিত-ময়ঙ্কের ব্যাটে ভালো জায়গায় ভারত

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রোহিত শর্মা ও ময়ঙ্ক আগরওয়ালের ব্যাটিং দেখে যখন বিশাখাপত্তনমের গ্যালারি আনন্দে উত্তাল ঠিক তখনই ছন্দপতন। হঠাৎ করে মেঘ জমল আকাশে। শুরু হল বৃষ্টি। অনেকক্ষণ অপেক্ষা করেও আর শুরু করা গেল না খেলা। প্রথম দিনের খেলার সমাপ্তি ঘোষণা করলেন আম্পায়ররা। প্রথম দিনের শেষে ভারতের রান বিনা উইকেটে ২০২। রোহিত ১১৫ ও ময়ঙ্ক ৮৪ রান করে অপরাজিত রয়েছেন।

টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এ দিন ময়ঙ্ক আগরওয়ালের সঙ্গে ওপেন করলেন রোহিত শর্মা। ভারতের এই নতুন ওপেনিং জুটি প্রথম ইনিংসে সুপার হিট।

দক্ষিণ আফ্রিকার দুই পেস বোলার কাগিসো রাবাদা ও ভার্নন ফিলান্ডার প্রথম থেকেই কঠিন প্রশ্ন করছিলেন। বল সুইং করছিল। সঙ্গে ভালো বাউন্স ছিল। প্রথম কয়েক ওভার ধরে খেলেন রোহিত। অযথা ঝুঁকি নেননি। অফ স্টাম্পের বাইরে ছিলেন সাবলীল। ধীরে ধীরে ক্রিজে জমে যাওয়ার পর নিজের হাত খোলা শুরু করেন তিনি। অন্যদিকে নিজের সাবলীল ভঙ্গিতেই খেলছিলেন ময়ঙ্ক।

স্পিনাররা আক্রমণে আসার পরে দেখা গেল সেই পুরনো রোহিতকে। সেই এগিয়ে এসে ছক্কা হাঁকানো। বোলারকে থিতু হওয়ার সময় দিলেন না। রোহিতের সঙ্গে রানের গতি বাড়ালেন আগরওয়ালও। লাঞ্চের আগেই নিজের হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন রোহিত।

লাঞ্চের পর এসে যেখানে শেষ করেছিলেন সেখান থেকেই শুরু করলেন হিটম্যান। তাঁর সামনে দক্ষিণ আফ্রিকার তিন স্পিনার কেশব মহারাজ, ডেন পিয়েট ও সেনুরান মুত্থুস্বামীকে অসহায় দেখাল। তাঁরা বুঝতেই পারছিলেন না কোথায় বল করবেন। বলে ফ্লাইট দিলে এগিয়ে এসে ছক্কা মারছিলেন। শর্ট বল করলে ব্যাকফুটে গিয়ে কাট-পুল করছিলেন। অন্যদিকে নিজের হাফেসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ময়ঙ্কও। তাঁকেও স্পিনের সামনে বেশ সাবলীল দেখাচ্ছিল। রোহিত বেশি আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করলেও তাঁকে সঙ্গ দিচ্ছিলেন ময়ঙ্ক।

মুত্থুস্বামীকে কাট করে ১৫৪ বলে নিজের সেঞ্চুরি করলেন রোহিত। তাঁর শেষ টেস্ট সেঞ্চুরি এসেছিল ২০১৭ সালে নাগপুরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। এ দিন ওপেন করতে নেমেই নিজের জাত চেনালেন তিনি। দেখে মনে হচ্ছিল ময়ঙ্কও নিজের প্রথম সেঞ্চুরি করবেন। কিন্তু তখনই শুরু হল বৃষ্টি। ক্রিকেটাররা চায়ের বিরতিতে গেলেও তারপর আর খেলা শুরু করা গেল না। প্রথম দিনের মতো শেষ হয়ে গেল খেলা।

 

 

Comments are closed.