রবিবার, জুন ১৬

দু’সপ্তাহের মধ্যে সারতে পারে ধাওয়ানের চোট, এই মুহূর্তে কোনও রিপ্লেসমেন্ট নয়, জানিয়ে দিল বিসিসিআই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মঙ্গলবার সকালেই ভারতীয় সমর্থকদের জন্য এসেছিল খারাপ খবর। বুড়ো আঙুল চিড় ধরায় তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে যেতে হচ্ছে শিখর ধাওয়ানকে। এমনকী মনে করা হচ্ছিল, এই বিশ্বকাপে হয়তো আর দেখা যাবে না ভারতের বাঁহাতি ওপেনারকে। কিন্তু সন্ধ্যায় বিসিসিআই জানিয়ে দিল, দু, সপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন গব্বর। তাই এই মুহূর্তে তাঁর বদলে কাউকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে না।

রবিবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে অজি পেস বোলার কুলটার-নাইলের বল লাফিয়ে উঠে ধাওয়ানের বুড়ো আঙুলে লাগে। তারপর দু’বার মাঠেই স্প্রে নিয়ে খেলেন গব্বর। করেন সেঞ্চুরি। তারপর শোনা যায়, ব্যথা বাড়ায় তাঁর আঙুলে এক্স রে করে চিড় ধরা পড়েছে। তাই তিন সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে ধাওয়ানকে।

এই খবর পাওয়ার পরেই শুরু হয় জল্পনা। তাহলে কি বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে গেলেন ধাওয়ান? তাঁর বদলে কে করবেন ওপেনিং? কেই বা ধাওয়ানের জায়গায় দলে ঢুকবেন?

ধাওয়ান না থাকায় রোহিত শর্মার সঙ্গে যে লোকেশ রাহুল ওপেন করবেন এটা নিশ্চিত। তবে চার নম্বরের জন্য কি দীনেশ কার্তিক অথবা বিজয় শঙ্করের মধ্যে কাউকে খেলানো হবে? এমনও শোনা যায় ভারত থেকে ঋষভ পন্থকে নিয়ে যাওয়া হতে পারে। সন্ধেবেলায় সব জল্পনা পরিষ্কার করে দিল বিসিসিআই।

বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, “ভারতের ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ানের হাড়ে সামান্য চিড় ধরেছে। এই মুহূর্তে বোর্ডের চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে ইংল্যান্ডেই থাকবেন ধাওয়ান। আশা করা হচ্ছে দু’সপ্তাহের মধ্যেই তাঁর চোট সেরে যেতে পারে। আর তাই এই মুহূর্তে তাঁর বদলি হিসেবে কাউকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে না।”

দু’সপ্তাহ পরে ধাওয়ান সুস্থ হয়ে উঠলে তাঁর মাঠে নামতে ২৫ জুন। এই সময়ের মধ্যে নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সঙ্গে ম্যাচ রয়েছে ভারতের। অর্থাৎ তারপরেও চারটে ম্যাচ বাকি থাকছে ভারতের। আপাতত সেই দিকেই তাকিয়ে ভারতীয় সমর্থকরা।

Comments are closed.