সোমবার, মে ২৭

বার্নাব্যুতে ফিরছেন জিজু, পুরনো সেনাপতিতেই ভরসা পেরেজদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মাত্র আড়াই বছরের কোচিং জীবনে এনে দিয়েছিলেন ৯টি ট্রফি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের হ্যাটট্রিক করে সরে গিয়েছিলেন রিয়েল মাদ্রিদের কোচের পদ থেকে। পরের ৯ মাসে শুধুই হতাশা দেখেছে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ক্লাব। লা লিগা জয়ের আশা নেই। আয়াক্সের কাছে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকেও। এই অবস্থায় ফের পুরনো সেনাপতির দিকেই ঝুঁকলেন ক্লাব মালিক পেরেজ। ফিরিয়ে আনা হলো জিনেদিন জিদানকে। তিন বছরের চুক্তিতে মাদ্রিদের কোচ হলেন জিজু।

গত বছর মে মাসে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের হ্যাটট্রিকের পর হঠাৎ করেই ইস্তফা দেন জিদান। ফুটবল বিশেষজ্ঞদের মতে, জিদানের এই চলে যাওয়ার পিছনে অন্যতম কারণ ছিল রিয়েলের তরফে রোনাল্ডোকে জুভেন্টাসের হাতে ছেড়ে দেওয়া। সেই রাগেই রিয়েল ছেড়েছিলেন জিজু। তারপর মাদ্রিদের কোচ হয়ে আসেন স্পেনের জাতীয় দলের কোচ লোপেতেগুই। কিন্তু পরের পাঁচ মাসে বিশেষ কিছু সাফল্য দেখাতে পারেননি তিনি। ফলে তাঁকেও সরে যেতে হয়।

এরপর কোচ হয়ে আসেন স্যান্টিয়াগো সোলারি। কিন্তু তাঁর রেকর্ড তো লোপেতেগুইয়ের থেকেও খারাপ। মাত্র চার মাসের মধ্যে তিনবার বার্সেলোনার কাছে হারতে হয়েছে রিয়েলকে। লা লিগায় বার্সার থেকে ১২ পয়েন্ট পিছিয়ে রিয়েল। লা লিগাতেও আয়াক্সের মতো দলের কাছে ঘরের মাঠে হেরে বিদায় নিতে হয়েছে। আর সোলারিরি উপর ভরসা রাখতে পারেননি পেরেজ। তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

ক্লাব সূত্রে খবর, বিকল্প কোচ হিসেবে প্রথম থেকেই ফের জিদানকেই চাইছিলেন পেরেজ। কিন্তু জিদান ফিরতে রাজি ছিলেন না। ফলে প্রাক্তন রিয়েল ও ম্যান ইউ কোচ হোসে মোরিনহোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। জানা গিয়েছে, মোরিনহোকে ১৪.৫ মিলিয়ন ইউরোর অফার দিয়েছিল মাদ্রিদ। একই অফার দেওয়া হয় জিদানকেও। শেষ পর্যন্ত রাজি হন জিদান।

সোমবার ক্লাবের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়েছে, “রিয়েল মাদ্রিদের বোর্ড অফ ডিরেক্টররা সোমবার একটি বৈঠকে ঠিক করেছেন, দলের কোচ হিসেবে স্যান্টিয়াগো সোলারির সঙ্গে চুক্তি শেষ করা হলো। মাদ্রিদের জন্য যে পরিশ্রম সোলারি করেছেন ও যে দায়বদ্ধতা দেখিয়েছেন, তার জন্য ক্লাব তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ। এই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, রিয়েল মাদ্রিদের নতুন কোচ হয়ে আসছেন জিনেদিন জিদান। ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত তাঁর সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছে। সোমবার স্প্যানিশ সময় রাত ৮টায় স্যান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে সাংবাদিক সম্মেলন করবেন জিদান।”

এর আগে আড়াই বছরের কোচিং জীবনে জিদান রিয়েল মাদ্রিদকে একটি লা লিগা, একটি স্প্যানিশ সুপার কাপ, দুটি উয়েফা সুপার কাপ, দুটি ক্লাব ওয়ার্ল্ড কাপ ও তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফি দিয়েছিলেন। চাপে পড়ে ফের সেই জিদানের উপরেই আস্থা রাখলেন পেরেজ।

আরও পড়ুন

অনুমতি নিয়েই রাঁচিতে সেনাবাহিনীর টুপি পরে নেমেছিলেন কোহলিরা, জানালো আইসিসি

Shares

Comments are closed.