মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৬

মাত্র ১০ বলে দ্রুততম রান তাড়া করে জয়, ক্রিকেটের ইতিহাসে অনন্য নজির মালয়েশিয়ার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: টেস্ট ক্রিকেটে দলের সংখ্যা কম হলেও সাদা বলের ক্রিকেট খেলিয়ে দেশের সংখ্যা এখন নেহাত কম নয়। তবে টেস্ট খেলিয়ে দেশের সঙ্গে একদিনের বা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুযোগ পেতে গেলে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে হয় অ্যাসোসিয়েট দেশগুলোকে। সে রকমেরই প্রতিযোগিতা চলছে ওয়ার্ল্ড টি টোয়েন্টির যোগ্যতা নির্ণায়ক পর্ব। প্রতিদিনই সেখানে দেখা যাচ্ছে নতুন নতুন রেকর্ড। এ বারও এক অনন্য রেকর্ড গড়ল মালয়েশিয়া।

ওয়ার্ল্ড টি ২০’র এশিয়া গ্রুপের যোগ্যতা নির্ণায়ক খেলায় মুখোমুখি হয়েছিল মালয়েশিয়া ও মায়ানমার। টসে জিতে প্রথমে মায়ানমারকে ব্যাট করতে পাঠান মালয়েশিয়ার অধিনায়ক আহমেদ ফৈয়াজ মহম্মদ নুর। কিন্তু বৃষ্টির পর স্যাঁতসেঁতে উইকেটে ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে মায়ানমার। তাঁদের ৭ জন ব্যাটসম্যান শূন্য রান করে আউট হন। কেবলমাত্র তিন জনের ব্যাট থেকে রান আসে। সর্বোচ্চ রান হয় ৩। ১০.১ ওভারে আট উইকেটের বিনিময়ে ৯ রান করার পর ফের বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। মালয়েশিয়ার হয়ে ৪ ওভারে ১ রান দিয়ে ৫টি উইকেট নেন পবনদীপ সিংহ। ২ উইকেট আনোয়ার রহমানের।

দ্য ওয়াল পুজো ম্যাগাজিন ১৪২৫ পড়তে ক্লিক করুন

মায়নমারের ইনিংসকে সেখানেই সমাপ্ত ঘোষণা করে দেওয়া হয়। ডাকওয়ার্থ লুইস নিয়মে মালয়েশিয়ার জয়ের জন্য রান এক থাকলেও ওভার কমে দাঁড়ায় ৮। কিন্তু অতদূর খেলতেই হয়নি মালয়েশিয়াকে। শুরুতেই অবশ্য দুই উইকেট হারায় মালয়েশিয়া। কিন্তু সুহানের ৭ ও মুনিয়ান্ডি’র ৪ রানের দৌলতে মাত্র ১.৪ ওভার অর্থাৎ ১০ বলে জয় তুলে নেয় তারা।

টি টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে সবথেকে কম বলে ম্যাচ জয়ের নজির গড়ল মালয়েশিয়া। এর আগে পরে ব্যাট করে এত কম বলে কেউ কোনও দিন জয় পায়নি। হোক না বিশ্বকাপের যোগ্যতা নির্ণায়ক ম্যাচ, মালয়েশিয়ার এই কৃতিত্বের পর থেকে প্রশংসার বার্তা আসছে বিভিন্ন মহল থেকে।

Shares

Comments are closed.