শুক্রবার, মে ২৪

‘বুমরাহ এক্সপ্রেসে’ বিপর্যস্ত ইংল্যান্ড, টেস্ট জয় থেকে এক কদম দূরে ভারত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তৃতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার সময় মনে হচ্ছিল ভারতের টেস্ট জয় শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু দাঁত কামড়ে লড়াই চালালেন বাটলার, স্টোকস ও আদিল রশিদ। গোটা দিনেও ইংল্যান্ডকে অল আউট করতে পারল না ভারত। জয়ের জন্য এখনও এক উইকেট দরকার ভারতের।

চতুর্থ দিনের শুরুটাও হয়েছিল ভারতের অনুকূলেই। মাত্র ৬২ রানের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান কুক, জেনিংস, রুট ও অলি পোপ। যখন মনে হচ্ছে লাঞ্চের আগেই হয়তো গুটিয়ে যাবে ইংল্যান্ড তখনই খেলা ধরেন স্টোকস ও বাটলার। পার্টনারশিপ গড়ার দিকে মন দেন তাঁরা। ভারতীয় বোলারদের সুইংয়ের সামনে অসহায় মনে হয়নি এই জুটিকে। বাটলার টেস্ট ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরান পূরণ করেন। পঞ্চম উইকেটের জন্য ১৬৯ রানের পার্টনারশিপ গড়েন স্টোকস ও বাটলার।

কিন্তু নতুন বল নেওয়ার পরেই ফের খেলায় ফেরে ভারত। এক ওভারেই বুমরাহর বিষাক্ত সুইংয়ে ১০৬ রানের মাথায় বাটলার ও পরের বলেই শূন্য রানে বেয়ারস্টো আউট হন। পরের ওভারেই বুমরাহর শিকার হন ওকস। ৭২ রানের মাথায় পান্ডিয়ার বলে আউট হন ইংল্যান্ডের শেষ ভরসা স্টোকস। কয়েক ওভার পরেই বুমরাহর বলে আদিল রশিদ আউট হলেও নো বলের কারণে উইকেট বাতিল হয়।

আর এই একটা নো বলই ভারতকে চার দিনের মধ্যে টেস্ট জয় থেকে বিরত রাখল। প্রথম ব্রড ও পরে অ্যান্ডারসনের সঙ্গে জুটি বাধলেন রশিদ। বুমরাহর পঞ্চম শিকার হিসেবে ব্রড আউট হলেও স্বাভাবিক খেলা খেললেন রশিদ। দিনের শেষে ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সফল বুমরাহ। তাঁর পাঁচ উইকেটেই সৌজন্যেই জয়ের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে আছে ভারত।

টেস্ট জয়ের জন্য পঞ্চম দিনে ভারতের দরকার মাত্র এক উইকেট। ইংল্যান্ডের দরকার ২১০ রান। তাই বলা যেতে পারে ম্যাচ ভারতের মুঠোয়। আর এক কদম এগোলেই তৃতীয় টেস্টে জয় পাবে বিরাট বাহিনী।

Shares

Leave A Reply