সোমবার, অক্টোবর ২১

রোহিতদের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ব্যাকফুটে দক্ষিণ আফ্রিকা, ম্যাচ জিততে ৯ উইকেট দরকার বিরাটদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: চতুর্থ দিনের প্রথম এক ঘণ্টা বাদ দিলে বাকি সময়টায় দাপট দেখাল ভারত। প্রথম ব্যাট হাতে রোহিত শর্মা ও চেতেশ্বর পূজারা ভালো খেললেন। শেষদিকে ঝোড়ো ব্যাটিং করলেন কোহলি, রাহানে, জাদেজারা। ভারতের রানের পাহাড়ের সামনে খেলতে নেমে প্রথমেই চাপে দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক দেখাচ্ছিল রোহিতকে। প্রথম ইনিংসের ডবল সেঞ্চুরিয়ান ময়ঙ্ক আউট হয়ে গেলেও নিজের স্বাভাবিক খেলা খেলেন রোহিত। অন্যদিকে পূজারা বেশ ধীরে খেললেও চালিয়ে খেলছিলেন তিনি। চতুর্থ দিন লাঞ্চের পরেই নিজের হাফ সেঞ্চুরি করেন রোহিত।

খেলার গতি বাড়ান পূজারাও। দুজনেই বেশ দ্রুত রান এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। মাঝেমধ্যে কিছু বল বসছিল, কিছু বল ঘুরছিল। কিন্তু বল দেখে খেলছিলেন দুজনে। একটা সময় মনে হচ্ছিল কে আগে সেঞ্চুরি করবেন, তা নিয়ে দুজনের মধ্যে প্রতিযোগিতা হচ্ছে। তার মধ্যেই ৮১ রানের মাথায় ফিলান্ডারের বলে আউট হন পূজারা।

রোহিত নিজের খেলা চালিয়ে যান। মাত্র ১৩৩ বলে সেঞ্চুরি করেন তিনি। এই রেকর্ড করার সঙ্গে সঙ্গেই এই এলিট লিগের সদস্য হলেন রোহিত। তাঁর আগে এক টেস্টের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি করা ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা হলেন বিজয় হাজারে, সুনীল গাভাসকার, রাহুল দ্রাবিড়, বিরাট কোহলি ও অজিঙ্কা রাহানে। তার মধ্যে গাভাসকার তিনবার ও দ্রাবিড় দুবার এই কীর্তি করেছেন। সিরিজের প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি অবশ্য একমাত্র রোহিত করলেন।

রানের গতি বাড়াতে গিয়ে ১২৭ রান করে আউট হন রোহিত। তারপর বেশ কিছু বড় শট খেলেন জাদেজা, কোহলি ও রাহানে। জাদেজা ৩২ বলে ৪০, কোহলি ২৫ বলে ৩১ ও রাহানে ১৭ বলে ২৭ করেন। শেষ পর্যন্ত ৪ উইকেটে ৩২৩ করে ডিক্লেয়ার দেয় ভারত।

৩৯৫ রানের টার্গেট নিয়ে খেলতে নেমে শুরুতেই প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান এলগারের উইকেট নেন জাদেজা। খেলা শেষ হওয়া পর্যন্ত ১১ রানে ১ উইকেট দক্ষিণ আফ্রিকার। এখনও জয়ের জন্য দরকার ৩৮৪ রান। ভারতের জিততে দরকার ৯ উইকেট। এখন দেখার শেষ দিনের শুরুটা কেমন করে দু’দল।

 

 

Comments are closed.