রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২

চাহারের বিধ্বংসী বোলিং, ব্যাটে কোহলি-পন্থ যুগলবন্দি, সিরিজ হোয়াইট ওয়াশ ভারতের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : প্রথম দুই টি ২০ ম্যাচের ছবিই ফের দেখা গেল তৃতীয় টি ২০তে। ব্যাটে বলে সফল ভারতীয় ক্রিকেটাররা। প্রথমে বল হাতে দাপট দেখালেন দীপক চাহার। পরে ব্যাট করতে নেমে দেখা গেল বিরাট কোহলি ও ঋষভ পন্থের পার্টনারশিপ। সহজেই ম্যাচ জিতে সিরিজ হোয়াইট ওয়াশ করল ভারত।

এ দিনও ফের টসে জেতেন কোহলি। বল করার সিদ্ধান্ত নেন। এ দিন ভারতীয় দলে একাধিক পরিবর্তন হয়েছিল। চাহার ব্রাদার্স এ দিন খেললেন। শুরুতেই দাপট দেখালেন দীপক চাহার। তাঁর সুইং বোলিং-এর জবাব ছিল না ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের কাছে। সুনীল নারিন, লুইস ও হেটমায়েরের উইকেট পাওয়ার প্লে-র মধ্যেই তুলে নেন চাহার।

তারপর পার্টনারশিপ গড়েন কাইরন পোলার্ড ও নিকোলাস পুরান। বিধ্বংসী মেজাজে ছিলেন পোলার্ড। বিশাল বিশাল ছক্কা হাঁকাচ্ছিলেন। কিন্তু ৫৮ করে নবদীপ সাইনির বলে বোল্ড হয়ে যান পোলার্ড। পুরানকেও ১৭ রানে প্যাভিলিয়নে পাঠান সাইনি। শেষদিকে কিছু বড় শট খেলেন রভম্যান পাওয়েল। তাঁর ৩২ রানের দৌলতে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৪৬ তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চাহার ৩ ওভারে ৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য শুরুটা খারাপ হয় ভারতের। মাত্র ৩ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ধাওয়ান। রোহিতের জায়গায় এ দিন খেলতে নামা লোকেশ রাহুলও ২০ করে আউট হন। তারপর পার্টনারশিপ গড়েন কোহলি ও পন্থ। এই জুটিই ভারতকে জয়ের দিকে নিয়ে যায়। প্রথমে কিছুটা ধরে খেললেও তারপর বিধ্বংসী হয়ে উঠলেন দুই ব্যাটসম্যান। দুজনেই হাফ সেঞ্চুরি করেন। ১০৪ রানের পার্টনারশিপ গরেন তাঁরা। কোহলি ৫৯ করে আউট হলেও পন্থ খেলা চালিয়ে যান। শেষ ওভারের প্রথম বলে ছয় মেরে খেলা শেষ করেন পন্থ। তিনি ৬৫ করে অপরাজিত থাকেন।

এ দিনের জয়ের ফলে সিরিজ ৩-০ জেতা ছাড়াও শেষ ছটি টি ২০ ম্যাচে ছটিতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাল ভারত। এ বার সামনে ওয়েন ডে সিরিজ। সে দিকেই চোখ কোহলিদের।

Comments are closed.