বুধবার, নভেম্বর ১৩

বিশ্বরেকর্ড ভারতের, ইনিংসের ব্যবধানে চূর্ণ দক্ষিণ আফ্রিকা, অনন্য কীর্তি কোহলিরও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিশাখাপত্তনমের থেকেও বড় ব্যবধানে জয় এল পুনেতে। ইনিংসের ব্যবধানে মাত্র চার দিনেই ম্যাচ জিতে নিলেন কোহলিরা। সেইসঙ্গে ঘরের মাঠে লাগাতার ১১ সিরিজ জিতে অনন্য রেকর্ড গড়ল টিম ইন্ডিয়া। রেকর্ড গড়লেন বিরাট কোহলিও। অধিনায়ক হিসেবে ১৩ টেস্ট সিরিজ জিতলেন তিনি। ধোনির ১২ সিরিজ জয়ের রেকর্ড ভাঙলেন বিরাট।

প্রথমে ব্যাট হাতে ময়ঙ্ক আগরওয়ালের ১০৮, বিরাট কোহলির ২৫৪ নটআউট ও রবীন্দ্র জাদেজার ৯১ রানের দৌলতে ৬০১ রান করে ডিক্লেয়ার করে ভারত। জবাবে ব্যাট করতে নেমে তৃতীয় দিনের শেষে ২৭৫ রানে শেষ হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংস।

৩২৬ রানের লিড থাকায় ফলো অন করায় ভারত। দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাট করতে নেমে একই ছবি। প্রথম ওভারেই মার্করামকে আউট করেন ইশান্ত। উমেশ যাদবের বলে ডি ব্রুইনের দুরন্ত ক্যাচ ধরেন ‘সুপারম্যান’ ঋদ্ধিমান। অধিনায়ক দু প্লেসি আগে নামলেও ফের অশ্বিনের বলে ঋদ্ধির দুরন্ত ক্যাচে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। লাঞ্চের ঠিক আগেই ৪৮ করে অশ্বিনের শিকার হন এলগার।

লাঞ্চের পরেই বড় শট খেলতে গিয়ে আউট হন ডি কক। বাভুমা কিছুটা টিকে থাকার চেষ্টা করলেও ৩৮ করে আউট হন। ফের শেষদিকে কিছুটা প্রতিরোধ দেখান ফিলান্ডার ও মহারাজ। চায়ের বিরতির পরেই ৩৭ রানে উমেশের শিকার হন ফিলান্ডার। সেই ওভারেই রাবাদাকে আউট করেন উমেশ। পরের ওভারে ২২ রানের মাথায় কেশব মহারাজকে আউট করেন জাদেজা।

এক ইনিংস ও ১৩৭ রানে ম্যাচ জিতে যায় ভারত। অধিনায়ক হিসেবে কোহলির ৫০ তম টেস্টে ইতিহাস গড়ল ভারত। ২০১৩ সাল থেকে ঘরের মাঠে লাগাতার ১১ টেস্ট সিরিজ জিতল ভারত। এই সময়ে কেবল একটি টেস্ট হেরেছে টিম ইন্ডিয়া। অধিনায়ক হিসেবে ধোনিকে টপকে গেলেন বিরাটও। অধিনায়ক হিসেবে দেশ-বিদেশ মিলিয়ে ১৩ টেস্ট সিরিজ জিতলেন তিনি। ধোনির ১২ টেস্ট সিরিজ জয়কে ছাপিয়ে গেলেন তিনি। সেইসঙ্গে অধিনায়ক হিসেবে ৩০টি টেস্ট জয় হল বিরাটের।

পড়ুন দ্য ওয়ালের পুজো সংখ্যার বিশেষ লেখা…..

বাইকে চেপে পৃথিবীর ছাদ পামিরে

Comments are closed.