বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

সৌরভের জন্যই আমি সেহওয়াগ হতে পেরেছি, মুখ খুললেন বীরু

দ্য ওয়াল ব্যুরো : অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের টিম ইন্ডিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য তিনি। ক্রিকেট দুনিয়ায় তাঁর মতো ডাকাবুকো ব্যাটসম্যান খুব কমই এসেছে। কিন্তু তাঁর সাফল্যের পিছনে সব কৃতিত্ব তিনি দিয়েছেন তাঁর অধিনায়ক সৌরভকে। খেলোয়াড় থাকাকালীন ও খেলা ছেড়ে দেওয়ার পরেও বীরুর চোখে সেরা অধিনায়ক সৌরভ, তাঁর দাদা। তাঁর জন্যই নাকি সেহওয়াগ হয়ে উঠতে পেরেছিলেন নজফগড়ের এই ছেলেটা।

সৌরভ বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর সম্প্রতি বিভিন্ন প্রচারমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছে সেহওয়াগ। সেরকমই একটা সাক্ষাৎকারে তাঁর খেলোয়াড় জীবনে সৌরভের প্রভাবের কথা তুলে ধরেন তিনি। প্রথম যখন ভারতীয় দলে সেহওয়াগ সুযোগ পান তখন তিনি ছিলেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। কখনও ৫, ৬ এমনকি ৭ নম্বরেও ব্যাট করতে নেমেছেন তিনি। কিন্তু বরাবরই হার্ড হিটিং সেহওয়াগ মিডল অর্ডারে মানিয়ে নিতে পারছিলেন না। সেটা লক্ষ্য করেছিলেন সৌরভ।

বীরু বলেন, “তখন ভারতীয় দলের ওপেনার শচীন-সৌরভ। মিডল অর্ডারে দ্রাবিড়, লক্ষ্মণ রয়েছেন। জায়গার খুব অভাব। একদিন দাদা আমাকে বলেছিলেন, তুমি ওপেনার হিসেবে খেলতে পার। আমি তিন নম্বরে নামব। কখনও শচীন না খেললে তোমার সঙ্গে ওপেন করব। ওপেনিংয়ে খেললে তুমি বেশি সুযোগ পাবে। কিন্তু মিডল অর্ডারে খেললে অন্যদের চোটের জন্য তোমাকে অপেক্ষা করতে হবে।”

আরও পড়ুন সৌরভকে নিয়ে আমার ভবিষ্যদ্বাণী মিলে গেছে, আর একটা কথাও আজ বলে রাখছি: সেহওয়াগ

শুধু ওপেনার হিসেবে জায়গা দেওয়া নয়, তাঁর উপর অগাধ আস্থা সৌরভ দেখিয়েছিলেন বলেই জানিয়েছেন সেহওয়াগ। তাঁর কথায়, “সৌরভ বলেছিলেন, তুমি চার-পাঁচটা ম্যাচ পাবে। যদি খারাপ খেলো, আরও কয়েকটা ম্যাচ তোমাকে দেব। তাতেও না হলে মিডল অর্ডারেও কয়েকটা ম্যাচ তোমাকে খেলাবো। তাই ভয় না পেয়ে নিজের স্বাভাবিক খেলাটা খেলো। আজ আমি যা, তা দাদার জন্যই হতে পেরেছি।” সেহওয়াগ জানিয়েছেন, অধিনায়কের এই আস্থা, বিশ্বাসই তাঁকে ভয়ডরহীন এক ক্রিকেটারে পরিণত করেছিল।

শুধু তিনি নন, তাঁর মতোই যুবরাজ সিং, মহম্মদ কাইফ, হরভজন সিং, জাহির খানদের মধ্যে প্রতিভা দেখে সেই প্রতিভাকে তুলে আনতে পেরেছেন সৌরভ। তাই তিনি এত সফল হয়েছেন। যেভাবে অধিনায়ক সৌরভের হাতে টিম ইন্ডিয়া তৈরি হয়েছিল, সেভাবে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভও নিজের ছাপ ফেলবেন বলেই বিশ্বাস বীরুর।

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯–এ প্রকাশিত গল্প

শয্যা উত্তোলন

Comments are closed.