ব্রডকে ছয় ছক্কার কথা বলে খোঁচা দেবেন না, ইংল্যান্ডের পেসারের বিরল কৃতিত্বে ভক্তদের পরামর্শ যুবির

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আসার পরেই একটা বিশাল কালো দাগ লেগেছিল ইংল্যান্ডের পেস বোলার স্টুয়ার্ট ব্রডের গায়ে। ২০০৭ সালের টি ২০ বিশ্বকাপে এক ওভারে ছ’বলে ব্রডকে ছটা ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। তারপর থেকে যতবার যুবির ছয় ছক্কার প্রসঙ্গ উঠেছে, ততবার ব্রডের নাম এসেছে। অনেকেই তাঁকে নিয়ে হাসাহাসি করেছেন। কিন্তু সেই সময়টা অনেক বদলে গিয়েছে। টেস্ট ক্রিকেটে বিরল কৃতিত্বের অধিকারী হয়েছেন ব্রড। আর তার আগেই নিজের ভক্তদের কাছে বার্তা রাখলেন যুবি।

    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে নিজের টেস্ট কেরিয়ারে ৫০০ তম উইকেট নিয়েছেন ব্রড। ক্যারিবিয়ান ওপেনার ক্রেগ ব্রেথওয়েটকে আউট করে এই কৃতিত্ব হয়েছে তাঁর। বিশ্বের সপ্তম বোলার হলেন ব্রড যাঁর টেস্টে ৫০০ উইকেট রয়েছে। প্রথম টেস্টে না খেলার পরেও বাকি দুই টেস্টে ইংল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে সবথেকে বেশি উইকেট নিয়েছেন তিনি। হয়েছেন সিরিজের সেরা। তাঁর বিধ্বংসী বোলিংয়েই হারতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। তৃতীয় টেস্টে একাই ১০ উইকেট নিয়েছেন এই ডান হাতি পেসার।

    ব্রডের এই কৃতিত্বের ঠিক আগেই ১৩ বছর আগের স্মৃতি ফিরিয়ে এনেছেন যুবি। টুইটার ও ইন্সটাগ্রামে তিনি লেখেন, “আমি জানি, যতবার আমি স্টুয়ার্ট ব্রডের বিষয়ে কিছু বলেছি বা লিখেছি মানুষ তাঁকে ছয় ছক্কা খাওয়ার জন্য মনে রেখেছেন। কিন্তু আজ আমি আমার ফ্যানদের বলতে চাই এই কথা না মনে করে ব্রড যে কৃতিত্ব করেছে তাকে সম্মান জানাতে। ৫০০ টেস্ট উইকেট কোনও মজার বিষয় নয়। বছরের পর বছর কঠিন পরিশ্রম ও অধ্যবসায় করলে তা পাওয়া যায়। সবসময় কঠিন পরিস্থিতি থেকে লড়াই করে তুমি জিতেছ। ব্রড, আমার বন্ধু, তুমি একজন কিংবদন্তি।”

    View this post on Instagram

    I’m sure everytime I write something about Stuart Broad, people relate to him getting hit for six sixes! But today I request all my fans not to mention it but to applaud what this man has achieved! 500 test wickets is no joke – it takes years of hard work, dedication and determination. How you have always fought and come victorious over your setbacks, Broady my friend you are a legend! Hats off 👊🏽🙌🏻 @stuartbroad8

    A post shared by Yuvraj Singh (@yuvisofficial) on

    শুধুমাত্র যুবরাজ নন, ব্রডের এই কৃতিত্বের পরে বিভিন্ন দেশ থেকে তাঁর উদ্দেশে ভেসে আসছে শুভেচ্ছার বার্তা। বর্তমান ও প্রাক্তন ক্রিকেটাররা ইংল্যান্ডের এই পেস বোলারের কৃতিত্বকে সম্মান করছেন। এত বছর ধরে ইংল্যান্ডের হয়ে ব্রড যে পরিষেবা দিয়েছেন, তার জন্য ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও তাঁকে সম্মান করেছে।

    ২০০৭ সালের পর থেকে অবশ্য সম্পর্ক দিন দিন আরও ভাল হয়েছে ব্রড ও যুবরাজের। ভাল বন্ধু হয়ে উঠেছেন তাঁরা। যদিও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দু’জনের মধ্যে লড়াইয়ে যুবিকেই জিততে দেখা গিয়েছে। আসলে যুবরাজ ভারতের হয়ে টেস্ট সেরকম না খেলায় লাল বলে ব্রডের সামনে সেভাবে পড়তে হয়নি তাঁকে। আর সাদা বলের ক্রিকেটে আধিপত্য দেখিয়েছেন যুবরাজ। তাতে তাঁদের বন্ধুত্বে কোনও ছেদ পড়েনি। সেটাই আরও একবার দেখা গেল। নিজেদের ফ্যানদের উদ্দেশে যুবি বললেন, ব্রডের কৃতিত্বকে সম্মান জানাতে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More