শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৪

দৌড়ে গিয়ে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে বল, ‘সুইচ আর্ম’ অ্যাকশন হিট সোশ্যাল মিডিয়ায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হেলিকপ্টার শট, দিল স্কুপ, সুইচ হিট….এগুলো সব আধুনিক ক্রিকেটের দান। ব্যাটসম্যানরা নিজেদের মতো করে উদ্ভাবন করেছেন এই সব শট। তাহলে বোলাররাই বা বাদ থাকেন কেন? সেরকমই এক নতুন বোলিং অ্যাকশন দেখা গেল সম্প্রতি।

বল ছাড়ার ঠিক আগের মুহূর্তে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে গেলেন বোলার। তারপর বল ছাড়লেন। সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়ার ডেডবল কল করলেন। আর এটা নিয়েই শুরু হলো বিতর্ক। দু পক্ষের খেলোয়াড়রাই আম্পায়ারের কাছে নিজের পক্ষ রাখার চেষ্টা করলেন। কিন্তুই আম্পায়ার নিজের সিদ্ধান্তে অনড়। কিছুতেই তিনি এইভাবে বোলিংয়ের অনুমতি দেবেন না।

আরও পড়ুন সুস্মিতার বাড়ির দিওয়ালি পার্টিতেও সঙ্গী রোহমান, কবে বসছেন ছাদনাতলায়? বলিউডে শুরু গুঞ্জন

ঘটনাটি ঘটেছে অনূর্ধ্ব ২৩ সিকে নাইডু ট্রফিতে। গত সপ্তাহে কল্যাণীতে উত্তরপ্রদেশ বনাম বাংলার ম্যাচ ছিল। সেখানেই এই কাণ্ড ঘটান উত্তরপ্রদেশের বাঁ-হাতি স্পিনার শিবা সিং। চলতি বছরেই পৃথ্বী শ’র নেতৃত্বে যে ভারতীয় দল অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জিতেছিল, সেই দলের নিয়মিত সদস্য এই শিবা। বল করার সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়ার বিনোদ সেশান ডেডবল কল করেন। বোলার ও ফিল্ডারদের অনেক আবেদনের পরেও আম্পায়ার বিনোদ সেশান ও লেগ আম্পায়ার রবি শঙ্কর নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন।

এই ঘটনার ভিডিও নিজেদের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করে বিসিসিআই। প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার ও অধিনায়ক বিষেণ সিং বেদীও এই ভিডিও নিজের টুইটারে আপলোড করেন। মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায় নেটিজেনদের মধ্যে। একদল যেমন বলেন, এ ভাবে বল করা শুধুমাত্র ব্যাটসম্যানকে ঘাবড়ে দেওয়ার পদ্ধতি। বোলার তাঁর অ্যাকশন বদলাতেই পারেন। কিন্তু তার জন্য আম্পায়ারের কাছে অনুমতি নিতে হয়। এক্ষেত্রে বোলার কিছুই করেননি। তাই আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ সঠিক।

আবার অনেকে এই বোলিং অ্যাকশনকে স্বাগতও জানিয়েছেন। তাঁদের বক্তব্য, বোলার হাত পাল্টাননি। তিনি বাঁ’হাতি বোলার। বাঁ হাতেই বল করেছেন। শুধু অ্যাকশনটা একটু বদলেছেন। তাই এক্ষেত্রে ডেডবল ডাকার কিছু হয়নি। অনেকে আবার বলেন, অ্যাকশনে কিছু এসে যায় না। আসল হলো নিয়ম মেনে বল করছে কিনা। অদ্ভুত বোলিং অ্যাকশন নিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে অনেক বোলারই সফল হয়েছেন। তাই এক্ষেত্রে আম্পায়ারদের উচিত ছিল তাঁকে সমর্থন করা।

ক্রিকেটের নিয়মে খালি কবজি ভাঙার পরিমাণ ঠিক করে দেওয়া আছে। এই ধরণের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে স্পষ্ট করে কোনও আইন নেই। কিন্তু ৪১.২ ধারায় বলা আছে, অ্যাকশনের বৈধতা মূলত নির্ভর করে আম্পায়ারদের উপর। আম্পায়াররা যদি মনে করেন, তাঁরা ডেডবল ডাকতেই পারেন। তাই এক্ষেত্রে বোলার বা ফিল্ডিং টিম কারও অভিযোগ করার কোনও জায়গা নেই।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.