সোমবার, মে ২৭

দুরন্ত কামব্যাক কোহলিদের, ২৩ বছরের রেকর্ড ভাঙার অপেক্ষায় ভারত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মোহালিতে যেখানে শেষ করেছিলেন, দিল্লিতে সেখান থেকেই শুরু করল অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলীয় ইনিংসের মাঝখানে দেখে মনে হচ্ছিল ৩৫০ রান উঠবে। কিন্তু খোয়াজা আউট হতেই খেলায় ফিরল ভারত। বেশ কয়েকটি উইকেট পড়ায় রানের গতি কমল। শেষ দিকে রিচার্ডসনের ঝোড়ো ইনিংসে ২৭২ রান তুলল অস্ট্রেলিয়া। অবশ্য ১৯৯৬ সালের পর ফিরোজ শাহ কোটলাতে ২৫০ রানের বেশি তাড়া করে কোনও দল জেতেনি। সেদিক থেকে দেখতে গেলে ভারতের সামনে ২৩ বছরের রেকর্ড ভাঙার হাতছানি।

কোহলির ঘরের মাঠে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিধান্ত নেন ফিঞ্চ। শুরু থেকেই দুই ওপেনার ফিঞ্চ ও খোয়াজা দুরন্ত শুরু করেন। প্রায় ১০০’র স্ট্রাইক রেটে রান তুলছিলেন তাঁরা। একমাত্র বুমরাহ ছাড়া কোনও বোলারই পিচ থেকে সুবিধা পাচ্ছিলেন না। প্রথম উইকেটে দুজনে ৭৬ রান তোলেন। তারপর জাদেজার বলে আউট হন ফিঞ্চ। অধিনায়ক আউট হতেই গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান হ্যান্ডসকম্ব এসে খোয়াজার সঙ্গে পার্টনারশিপ গড়েন। খোয়াজা সিরিজে নিজের দ্বিতীয় শতরানের দিকে এগোচ্ছিলেন। কোহলির প্রধান অস্ত্র কুলদীপ যাদবও এ দিন প্রচুর রান দিচ্ছিলেন।

১০০ রান করার পরেই ভুবনেশ্বর কুমারের বলে আউট হয়ে যান খোয়াজা। ম্যাক্সওয়েলও বেশি করতে পারেননি। হ্যান্ডসকম্বের উইকেটও ৫২ রানের মাথায় তুলে নেন শামি। তারপরেই চাপে পড়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। ১৭৫ রানে ১ উইকেট থেকে ২২৯ রানে ৭ উইকেট পড়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার। এই সময় বেশ চাপে পড়ে যান অজি ব্যাটসম্যানরা। দুরন্ত বোলিং করছিলেন বুমরাহ ও ভুবনেশ্বর। তবে ৪৮তম ওভারে বুমরাহকে মেরে ১৯ রান নেন রিচার্ডসন। ফলে শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটের বিনিময়ে ২৭২ রানে শেষ হয় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস।

ভারতের হয়ে ভুবনেশ্বর কুমার ৩টি উইকেট এবং শামি ও জাদেজা ২টি করে উইকেট নেন। অন্য উইকেটটি নেন কুলদীপ যাদব।

তবে ফিরোজ শাহ কোটলাতে রান তাড়া করার ক্ষেত্রে রেকর্ড খুব একটা ভালো নয়। ১৯৯৬ সালের পর থেকে ২৫০ রানের বেশি তাড়া করে জেতেনি কোনও দল। তাই যদি সিরিজ নিজের মুঠোয় করতে হয়, তাহলে ২৩ বছরের রেকর্ড ভাঙতে হবে কোহলিদের। আপাতত সে দিকেই তাকিয়ে ভারতীয় সমর্থকরা।

Shares

Comments are closed.