শনিবার, মে ২৫

দুরন্ত লড়েও শেষ বলে হার ভারতের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ব্যাটিং ব্যর্থতার পরে মনে হয়েছিল ১৫ ওভারেই হয়তো ম্যাচ জিতে নেবে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু দুরন্ত বোলিংয়ে ভারতকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে গিয়েছিলেন বুমরাহ। তীরে গিয়ে তরী ডুবল। শেষ বলে ভারতের মুখ থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। হার দিয়েই টি টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করল বিরাট বাহিনী।

এ দিন বিশাখাপত্তনমে খেলা শুরুর আগে পুলওয়ামার শহিদ জওয়ানদের উদ্দেশে দু’মিনিট নীরবতা পালন করেন দু’দেশের ক্রিকেটাররা। কোহলিরা কালো আর্মব্যান্ড পরে খেলতে নেমেছিলেন। টসে জিতে ভারতকে ব্যাট করতে পাঠান ফিঞ্চ। শুরুতেই রোহিত শর্মার উইকেট হারায় ভারত। তারপর কোহলির সঙ্গে পার্টনারশিপ গড়েন রাহুল। অনেকদিন পর বেশ সাবলীল দেখালো লোকেশ রাহুলকে।

ব্যক্তিগত ২৪ রানের মাথায় জাম্পাকে ছয় মারতে গিয়ে আউট হন কোহলি। তারপরেই ব্যাটিংয়ের খেই হারিয়ে ফেলে ভারত। পন্থ ৩ রানের মাথায় রান আউট হন। ৫০ করার পরেই আউট হয়ে যান রাহুল। একদিকে ধোনি থাকলেও অন্যদিকে একে একে দীনেশ কার্তিক, ক্রুণাল পান্ড্যরা প্যভিলিয়নে ফিরতে থাকেন। ধোনি ৩৭ বলে ২৯ করে অপরাজিত থাকেন। ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২৬ তোলে টিম ইন্ডিয়া।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫ রানের মাথাতেই স্টয়নিস ও ফিঞ্চের উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। তারপর খেলা ধরেন ডার্সি শর্ট ও ম্যাক্সওয়েল। ম্যাক্সওয়েলকেই বেশি আক্রমণাত্মক দেখাচ্ছিল। ৪৩ বলে ৫৬ রান করে চাহালের বলে আউট হন ম্যাক্সওয়েল। শর্টও ৩৭ করে আউট হন। তারপরেই খেলায় ফেরে ভারত। ক্রুণাল পান্ড্য, ডেবিউট্যান্ট ময়াঙ্ক মার্কন্ডে, চাহালদের আঁটোসাঁটো বোলিংয়ে রান আসছিল না।

শেষে ১২ বলে দরকার ছিল ১৬ রান। ১৯তম ওভারে মাত্র ২ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন বুমরাহ। শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৪ রান। কিন্তু উমেশ যাদবের বাজে বোলিংয়ে সেই রান তুলে নেয় অজিরা। শেষ বলে ২ রান দরকার ছিল। উমেশের মিস ফিল্ডিংয়ের ফলেই সেই ২ রান হয়। ফলে জয়ের কাছে এসেও হার নিয়েই বেঙ্গালুরুর বিমান ধরতে হবে কোহলি অ্যান্ড কোংকে।

আরও পড়ুন

বিরোধিতা নয়, অপব্যাখ্যা! সচিন ভাল বন্ধু ছিলেন, সব সময় থাকবেন: সৌরভ

Shares

Comments are closed.