ইস্টবেঙ্গলের শেষ আশাতেও কি ‘জল’! লাল-হলুদকে বাদ দিয়েই আইএসএলের ফেসবুক পেজে জায়গা হল ১০ দলের

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এ মরশুমের আইএসএলে কি ইস্টবেঙ্গল খেলবে? এই প্রশ্নে সম্ভাবনা অনেক আগেই শেষ হয়ে গিয়েছিল। তবু একটা আশায় বুক বেঁধে ছিলেন লক্ষ লক্ষ লাল-হলুদ সমর্থক। যদি কিছু হয়! কিন্তু মঙ্গলবার বিকেলের পর অতি বড় ইস্টবেঙ্গল সমর্থকও আর এ মরশুমে আইএসএল খেলার স্বপ্ন দেখতে পারছেন না।

হিরো আইএসএল-এর অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলির লোগো লাগানো হয়েছে এদিন। কভার ফটোতে ঠাঁই হয়েছে ১০ দলের। তাতে নেই ১০০ বছর পেরনো ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। ক্রীড়া মহলের অনেকের মতে, এফএসডিএল সরকারি ঘোষণা না করলেও ফেসবুক পেজের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিল, ভারতীয় ফুটবলের এক নম্বর লিগে এ বার এন্ট্রি পাচ্ছে না ইস্টবেঙ্গল।

ওই কভার পেজের প্রথম লোগোটি এটিকে-মোহনবাগানের। এমনিতেই এটিকে তিন বার আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এবছর তাঁদের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছে সবুজ-মেরুন। তাই একে জায়গা করে নিয়েছে এটিকেএমবি। এর পর একে একে রয়েছে বেঙ্গালুরু এফসি, চেন্নাইয়িন এফসি, এফসি গোয়া, হায়দরাবাদ এফসি, জামশেদপুর এফসি, কেরালা ব্লাস্টার্স এফসি, মুম্বই সিটি এফসি, নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেড এফসি এবং ওড়িশা এফসি। শুধু ফেসবুক পেজ নয়। এফএসডিএলের ওয়েবসাইটেও ১০ দলের লোগো সম্বলিত পোস্টার জায়গা করে নিয়েছে।

যদিও এ ব্যাপারে সরকারি ভাবে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। পর্যবেক্ষকদের মতে, ইস্টবেঙ্গল যথেষ্ট সময় পেয়েছিল। কিন্তু দেবব্রত সরকার, কল্যাণ মজুমদার, শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্তরা তা কাজে লাগাতে পারেননি। সমালোচকদের অনেকের মতে, ইন্দোনেশিয়ার বাঙালি শিল্পপতি প্রসূন মুখোপাধ্যায়ের গোষ্ঠীর সঙ্গে কথা এগোলেও তা পরিণতি পায়নি কর্তাদের ‘ইগো’র জন্যই। অনেক ইস্টবেঙ্গল সমর্থকের কথায়, আসলে কর্তাদের এখন উদ্দেশ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে ক্লাবে তাঁদের দখল কায়েম রাখা। ভারতবর্ষের ফুটবলে ক্লাবের সম্মান, লক্ষ লক্ষ সমর্থকের আবেগের কোনও মূল্য তাঁদের কাছে নেই।

অন্য দিকে সোমবার রাত থেকে ইস্টবেঙ্গল তাঁবু ছেয়ে যায় দুই সংস্থার হোর্ডিংয়ে।  অনেকে মনে করেছিলেন স্পনসর বোধহয় এসেই গেল! কিন্তু এফএসডিএলের ফেসবুক পেজের কভার ফটো সব আশায় জল ঢেলে দিয়েছে বলে মনে করছেন ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা।

মঙ্গলবার এফএসডিএলের টিম গিয়েছে গোয়ায়। এক শহরে টুর্নামেন্ট করার ব্যাপারে গোয়ার পাঁচটি স্টেডিয়ামের পরিকাঠামো দেখবেন তাঁরা। এই সপ্তাহের শেষেই টুর্নামেন্ট সংক্রান্ত সমস্ত ঘোষণা করে দিতে পারে এফএসডিএল।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More