বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

৭৪০ কোটি টাকা প্রতারণার অভিযোগে ধৃত ব়্যানব্যাক্সির প্রাক্তন কর্ণধার, পলাতক তাঁর ভাই

দ্য় ওয়াল ব্যুরো: ৭৪০ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে গ্রেফতার করা হল ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা র‌্যানব্যাক্সির প্রাক্তন কর্ণধার শিবেন্দ্রমোহন সিংহকে। পুলিশ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার দিল্লি পুলিশের বিশেষ অপরাধদমন শাখার তরফে গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁকে। শিবেন্দ্রমোহনের বিরুদ্ধে রুজু হওয়া জালিয়াতির মামলায় নাম রয়েছে তাঁর ভাই মলবেন্দ্র সিংহেরও।

সন্দেহের তালিকায় অনেক দিন ধরেই ছিলেন শিবেন্দ্রমোহন। মাস দুয়েক আগেই তাঁর বাড়িতে ও অফিসে হানা দেয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরের আধিকারিকেরা। সংগ্রহ করে বিভিন্ন নথি। এর পরেই এই দিন গ্রেফতার করা হয় শিবেন্দ্রকে। ভাই মলবেন্দ্র পলাতক, তাঁর খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, রেলিগেয়ার নামের একটি সংস্থা শিবেন্দ্র ও তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনেছে। সংস্থার সঙ্গে প্রতারণা করে তহবিল তছরূপ করেছেন বলে অভিযোগ তাঁদের বিরুদ্ধে। গত বছর ডিসেম্বর মাসে দায়ের হয়েছিল এই অভিযোগ। এর পরে গত মে মাসে তাঁদের বিরুদ্ধে ৭৪০ কোটি টাকার প্রতারণা, জালিয়াতি এবং আত্মসাতের মামলা দায়ের হয়।

আর্থিক তছরূপের তদন্তে নেমে ইডি জানতে পারে, শিবেন্দ্র ও মলবেন্দ্র রেলিগেয়ার সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা। সংস্থার আয়ের টাকায় দেশের বিভিন্ন শহরে একাধিক ফর্টিস হাসপাতাল গড়েন তাঁরা। কিন্তু একই সঙ্গে আত্মসাৎ করতে থাকেন কোটি কোটি টাকা। এভাবেই ৭৪০ টাকা তছরূপ হয়ে যায়। এর পরে পরিস্থিতি হাতের বাইরে বেরিয়ে গেলে, দুই ভাইয়ের মধ্যে চরম ঝামেলা লাগে। এর পরেই ধরা পড়ে যান তাঁরা।

২০০৮ সালে জাপানি সংস্থা দাইচি র‌্যানব্যাক্সি বিক্রি করে দেন শিবেন্দ্র এবং মলবেন্দ্র। তার পরে ফর্টিস হেলথকেয়ার এবং রেলিগেয়ারেই মনোনিবেশ করেন তাঁরা। কিন্তু এবার শিরে সংক্রান্তি দু’জনেরই।

Comments are closed.