শনিবার, আগস্ট ১৭

মোদী বিশকেক যাচ্ছেন, কেমন সেই কিরঘিজ শহর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেওয়ার পর প্রথম বিদেশ সফরে যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী। কিরঘিজস্থানের রাজধানী শহর বিশকেক-এ সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের (এসসিও) বৈঠক হবে ১৩ ও ১৪ জুন। সেই বৈঠকে যোগ দেবেন তিনি। ভারত ছাড়াও এসসিও-র সদস্য দেশগুলি হল,-চিন, রাশিয়া, পাকিস্তান, কাজাকস্তান, কিরঘিজস্তান, তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তান। বিশেকেক-এ এই সব দেশের রাষ্ট্রনেতারাই উপস্থিত থাকবেন এসসিও শীর্ষ সম্মেলনে।

কিন্তু কেমন শহর এই বিশকেক?
কিরঘিজস্তানের রাজধানী বিশকেক-কে আগে পিশপেক-ও বলা হত। চুই উপত্যকায় তিয়েন শান পর্বতমালার কোলে অবস্থিত এই শহর। তুলনামূলক ভাবে নতুন জনপদ বিশকেক।

ঐতিহাসিক স্থানও তাই কম। কিন্তু তিয়েনশান পর্বতমালা ও অ্যালপাইন লেক ঘুরে দেখার জন্য এই শহরে পর্যটকের আনাগোনা থাকে বছর ভর। জারদের সময় যে সব শহর সুপরিকল্পিত ভাবে গড়ে তোলা হয়েছিল বিশকেক তার অন্যতম। চওড়া রাস্তা, সেচ খাল, বড় বড় গাছে ভরা শহরে সোবিয়েত জমানার স্থাপত্যের প্রাসাদ রয়েছে অসংখ্য। তেমনই মার্বেলের কাজ প্রাসাদগুলিতে।

ইতিহাস বলে বিশকেক শহরের পত্তন হয়েছে ১৮২৫ সাল নাগাদ। চুই নদীর ধারে একটা মাটির দুর্গ বানিয়ে এই শহরের পত্তন করেছিলেন উজবেক খান। পরে ১৮৬২ সালে রাশিয়া এই শহর দখল করে নিয়ে, তাদের সেনা ঘাঁটি গড়ে তোলে।


পর্যটকদের কাছে বিশকেক জনপ্রিয় এখানকার নাইটলাইফের জন্য। শহর জুড়ে রয়েছে অসংখ্যা পাব, রেস্তোরাঁ। বিদেশি পর্যটকদের ভিসা দেওয়ার পর ব্যাপারে কিরঘিজস্তান উদার। দেখে নিন বিশকেকে কিছু ছবি..

আরও পড়ুন:

সম্মতি থাকলেও পাক আকাশসীমা এড়াবেন মোদী, বিশকেক যাবেন ঘুরপথে

Comments are closed.