বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

বিজ্ঞানী নন, শিবন যেন নামজাদা এক তারকা! বিমানের যাত্রীরা ফেটে পড়লেন হাততালি, উচ্ছ্বাসে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তিনি কোনও বলিউড নায়ক নন। ক্রিকেট তারকাও নন। কিন্তু তার পরেও তাঁকে দেখে গোটা বিমানে যে উচ্ছ্বাসটা ভেঙে পড়ল, তা যেন হার মানিয়ে দিল কোনও হেভিওয়েট সেলিব্রিটিকে সামনে থেকে দেখার আনন্দকে। হবে না-ই বা কেন! তিনি দেশের সকলের প্রিয় মহাকাশ বিজ্ঞানী, কে শিবন। ইসরো-র চেয়ারম্যান। কয়েক দিন আগের চন্দ্রযান-২ অভিযানের সময়ে জয় করে নিয়েছেন সারা দেশের মন।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ৯০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও। তাতে দেখা যাচ্ছে, ইন্ডিগোর একটি বিমানে উঠেছেন শিবন। সঙ্গে সঙ্গে ক্রু মেম্বাররা তাঁর কাছে আবদার করেন সেলফি তোলার জন্য। তিনি রাজিও হন। অন্য যাত্রীরাও তত ক্ষণে চিনতে পারেন শিবনকে। একে একে সকলে এগিয়ে আসেন, কথা বলেন, ছবি তোলেন। এর পরে শিবন হেঁটে গিয়ে নিজের আসনে বসার সময়ে সকলে হাততালি দিয়ে স্বাগত জানান তাঁকে।

লেখক শৈফালি বৈদ্য এই ভিডিওটি টুইট করে লিখেছেন, “বিমানে শিবনকে রীতিমতো এক জন নায়কের সম্মান দেওয়া হল। মন ভরে গেল এমনটা দেখে।”

দেখুন সেই টুইট।

ভিডিও-য় চোখে পড়ে, গোটা সময়টায় অদ্ভুত বিনয়ের সঙ্গে, মুখে একটি শিশুসুলভ হাসি ঝুলিয়ে পার করলেন ইসরো-কর্তা। যেন বড়ই অস্বস্তিতে পড়েছেন, তাঁকে নিয়ে মানুষের এই মাতামাতিতে। টুইটের কমেন্ট সেকশনে চোখ রাখলে বোঝা যায়, এই সরলতা চোখ এড়িয়ে যায়নি নেটিজেনদের। সেই সঙ্গে অনেকেই তাঁকে উল্লেখ করেছেন দেশের নায়ক বলে।

এই সরলতা দেখে অনেকের আবার মনে পড়ে গেছে, চন্দ্রযান-২ অভিযানে ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে ইসরো-র যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যাওয়ার মুহূর্তে শিবনের কেঁদে ফেলার দৃশ্য। নেটিজেনরা বলছেন, যত বড় বিজ্ঞানীই হোন না কেন, শিবন যে আদতেই মাটির মানুষ তা তাঁর অভিব্যক্তিই বলে দেয়।

Comments are closed.