মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২১
TheWall
TheWall

মার্সিডিজ চেপে শিক্ষামন্ত্রীর বাড়িতে বৈশাখী, পদত্যাগ পত্র নিলেন না পার্থ

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: খোদ শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কাছেই মিল্লি আল আমিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ইস্তফা দিতে এলেন। এমনটা যে করবেন সেটা অবশ্য আগেই জানিয়েছিলেন তিনি। সেই মতো শুক্রবার সকালে শিক্ষামন্ত্রীর বাসভাবনে এলেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিশেষ বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়।

নীল শাড়ি পরে কালো মার্সিডিজ থেকে যখন নামলেন তখন সংবাদমাধ্যমের ভিড় লেগে গিয়েছে নাকতলায়। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে বেড়লেন বেশ কিছুক্ষণ পরে আর জানালেন কেন তিনি শিক্ষামন্ত্রীকেই দিলেন পদত্যাগ পত্র। বললেন কলেজের পরিচালন সমিতি কার্যকর না থাকাতেই তিনি শিক্ষামন্ত্রীর দরজায় কড়া নাড়লেন। তবে তাঁর পদত্যাগ পত্র গ্রহণই করেননি শিক্ষামন্ত্রী। এর পরেও যে তিনি আর কলেজে যোগ দেবেন না সেই অনড় অবস্থানও জানিয়ে দিয়েছেন বৈশাখী।

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরে বৈশাখী জানান, নিজের পদত্যাগ পত্রে তিনি একগুচ্ছ অভিযোগ জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রীকে। ধর্মীয় কারণে তাঁকে হয়রানি করা এবং কলেজের নানা দুর্নীতিরও অভিযোগ তুলেছেন বৈশাখী। তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাঁর ইস্তফা গ্রহণে রাজি না হলেও তিনি এই ব্যাপারে অনড়। তিনি পদত্যাগ পত্র রাজ্যপালকেও পাঠাবেন বলে জানিয়েছেন।

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, শিক্ষামন্ত্রী একটি উচ্চপর্যায় তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। সেই কারণেই এখন তাঁর ইস্তফা তিনি গ্রহণ না করে তদন্ত ও তার ফলাফল পর্যন্ত অপেক্ষা করার আনুরোধ করেছেন। যদিও মিল্লি আল আমিন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষা বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় আর কলেজে যাবেন না বলে আগেই জানিয়েছেন। বুধবার সাংবাদিক সম্মেলন করে সেই কথা বলতে গিয়ে তিনি কেঁদেও ফেলেন।

Share.

Comments are closed.