সোমবার, অক্টোবর ২১

পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের পাতে পড়বে না বিরিয়ানি-মিষ্টি, ফরমান মিসবার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এই তো ক’মাস আগের কথা! বিশ্বকাপের সময়ে পাকিস্তানি ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সারফারোজের ভুঁড়ি নিয়ে কী বিদ্রুপই না হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এ বার দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ফিটনেস বাড়াতে নয়া ফরমান কোচের। মিসবা উল হকের স্পষ্ট নির্দেশ, জাতীয় শিবিরে কোনও ক্রিকেটারকে বিরিয়ানি বা তৈ’ লাক্ত খাবার দেওয়া যাবে না। দেওয়া যাবে না মিষ্টি জাতীয় খাবারও।

পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার মিসবা এখন হেড স্যারের দায়িত্বে। আইএএনএস-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, মিসবা ডায়েট চার্ট তুলে দিয়েছেন টিম ম্যানেজমেন্টের হাতে। নিউট্রিশনিস্টের পরামর্শ মেনে স্পষ্ট বলে দেওয়া হয়েছে, কোনও রিচ খাবার চলবে না। মাংস খেলে তা খেতে হবে স্ট্যু’ করে।

এমনিতে সারা পৃথিবীর সমস্ত পেশাদার দলই খেলোয়াড়দের নির্দিষ্ট ডায়েট তালিকায় বেঁধে রাখে। গত বছরই আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে জানা গিয়েছিল, জার্মানির খেলোয়াড় মেসুট ওজিল ঈদের নামাজ পড়েও জুস খেয়ে ছিলেন। সে দিন ছিল বুন্দেস লিগার ম্যাচ। তাঁকে টিম ম্যানেজমেন্ট ছাড় দিয়েছিল। তবুও লোভ সামলে নিয়েছিলেন ওজিল।

কিন্তু পাকিস্তান টিম তো এ সব ক্ষেত্রে সবসময়েই আলাদা। বিশ্বকাপে ভারতের কাছে হারার পর পাক জনতার একটা বড় অংশ সোশ্যাল মিডিয়ায় পাক অধিনায়কের একটি ছবি ছড়িয়ে দিয়েছিল। যাতে দেখা গিয়েছিল, এক থালা পিৎজা, বার্গার নিয়ে বসেছেন ক্যাপ্টেন।

এ হেন টিমে মিসবার ফরমান কতটা কাজ করে এখন সেটাই দেখার।

Comments are closed.