মঙ্গলবার, মার্চ ১৯

ইউটিউব ভিডিও দেখে সন্তান প্রসবের চেষ্টা, মর্মান্তিক মৃত্যু মা ও সদ্যোজাতের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘থ্রি ইডিয়টস’ সিনেমায় কলেজের কমনরুমে টেবিল টেনিসের বোর্ডে ‘ডেলিভারি সিন’ মনে আছে? সেই সময় অনেকেই এই দৃশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তবে সেটা ছিল সিনেমা। রিল লাইফের সেই কল্পকাহিনীই কার্যত রিয়েল লাইফে করতে গিয়ে প্রাণ গেল এক তরুণীর। মৃত্যু হলো তাঁর সদ্যোজাতেরও।

ঘটনা উত্তরপ্রদেশের বিলান্দপুরের। সেখানেই একটি বাড়ির নীচের তলার একটি ঘর ভাড়া নিয়ে থাকছিলেন ওই তরুণী। বাড়িওয়ালার থেকে খবর পেয়ে ঘরে ঢুকেই চমকে ওঠেন পুলিশ কর্তারা। ঘরের মেঝে ভেসে যাচ্ছে রক্তে। মাটিতে পড়ে রয়েছেন এক তরুণী। তাঁর সারা শরীর রক্তে মাখামাখি। শরীরের সঙ্গে তখনও জুড়ে রয়েছে অ্যাম্বিলিকাল কর্ড। তাতে জড়ানো সদ্যোজাত। দু’জনের দেহই নিথর।

পুলিশ জানিয়েছে, ইউটিউবে ভিডিও দেখে স্বাভাবিক প্রসব করতে গিয়েই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন তরুণী। তাঁর মোবাইল ঘেঁটে এমনই তথ্য পেয়েছে পুলিশ। স্বাভাবিক প্রসব সংক্রান্ত অসংখ্য ভিডিও ইউটিউবে নিয়মিত দেখতেন তিনি।

বাড়িওয়ালাকে জিজ্ঞাসা করে পুলিশ জেনেছে, ওই তরুণী অবিবাহিত। চার দিন আগে ঘর ভাড়া নেন।  তিনি গর্ভবতী ছিলেন। তাঁর শারীরিক অবস্থা দেখে ঘর ভাড়া দিতে রাজি হয়ে যান গৃহকর্তা। তদন্তকারীদের কথায়, ওই তরুণী বাহারাইচের বাসিন্দা। চার বছর ধরে গোরক্ষপুরে থাকতেন। চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। চার দিন আগে বিলান্দপুরে আসেন। পুলিশের ধারণা, সম্ভবত সন্তানের জন্ম দেওয়ার জন্য বিলান্দপুরে ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন তরুণী।

মৃতার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। যে ব্যক্তির সঙ্গে তরুণীর সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল চলছে তাঁর খোঁজও।

Shares

Comments are closed.