শুক্রবার, এপ্রিল ২৬

আমরা ক্ষমতায় এলে তিন তালাক আইন তুলে নেব : মহিলা কংগ্রেস সভানেত্রী সুস্মিতা দেব

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তাৎক্ষণিক তিন তালাক বন্ধ করতে আইন এনেছিল কেন্দ্র। জানানো হয়েছিল, এরপর থেকে তিন তালাকের ক্ষেত্রে অভিযোগ হলে তিন বছরের জেল পর্যন্ত হতে পারে। উনিশের লোকসভা নির্বাচনে ক্ষমতায় এলে সেই আইন পরিবর্তন করা হবে, এমনটাই দাবি করলেন অসমের শিলচরের কংগ্রেস সাংসদ তথা সর্বভারতীয় মহিলা কংগ্রেসের সভানেত্রী সুস্মিতা দেব।

বৃহস্পতিবার দিল্লিতে কংগ্রেসের সংখ্যালঘু বিভাগের জাতীয় কনভেনশনে যোগ দিয়ে এ কথা বলেন সাতবারের সাংসদ প্রয়াত কংগ্রেস নেতা সন্তোষ মোহন দেবের মেয়ে। সুস্মিতা বলেন, “আমি আপনাদের কথা দিচ্ছি, ২০১৯ সালে কংগ্রেস ক্ষমতায় আসবে। আমি আরও একটা কথা দিচ্ছি। আমরা ক্ষমতায় এলেই তিন তালাকের আইনে পরিবর্তন আনবো।”

সুস্মিতা অভিযোগ করেন, বিজেপির তিন তালাক বিল আনার পিছনে অন্য উদ্দেশ্য ছিল। তিনি বলেন, “মুসলমান মহিলাদের হাতে ক্ষমতা দেওয়ার জন্য এই বিল আনেনি কেন্দ্র। এই বিল আনা হয়েছিল যাতে মুসলিম পুরুষদের বিরুদ্ধে এই বিলকে ব্যবহার করা যেতে পারে।” তিনি বারও অভিযোগ করেন, “আমরা এই বিলের বিরোধিতা করেছিলাম। কারণ ছিল এই বিলে বলা হয়েছিল, এই অভিযোগে তিন বছরের জেল পর্যন্ত হতে পারে। এ ভাবে এই বিলকে ধর্মীয় উদ্দেশ্যে কাজে লাগাতে চেয়েছিল বিজেপি সরকার।”

কংগ্রেস সাংসদ তথা মহিলা কংগ্রেসের সভানেত্রীর করা এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করা হয়েছে বিজেপির তরফ থেকে। বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্র বলেছেন, “একজন মহিলা হয়ে তিনি কীভাবে এই কথা বলতে পারেন। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে, কংগ্রেসের কী মানসিকতা। বিজেপি সরকার এই বিল এনেছিল মুসলমান মহিলাদের সুরক্ষার কথা ভেবে। কিন্তু কংগ্রেসের এই মন্তব্যই বুঝিয়ে দিচ্ছে মহিলাদের সুরক্ষার ব্যাপারে তাদের কী মনোভাব। সর্বোপরি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের বিরোধিতা করছে কংগ্রেস।”

গত বছর অগস্ট মাসে সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রকে নির্দেশ দেয় তিন তালাকের বিষয়ে আইনে পরিবর্তন করতে। তারপরেই নতুন আইন নিয়ে আসে কেন্দ্র। জানানো হয়, তিন তালাকের ব্যাপারে কোনও অভিযোগ করা হলে সর্বোচ্চ তিন বছরের জেল হতে পারে। কিন্তু কংগ্রেস সহ বেশ কয়েকটি দল এই আইনের বিরোধিতা করে। তাদের তরফে জানানো হয়, এটি একটি সামাজিক বিষয়। এখানে সাজার ব্যাপার যুক্ত করা উচিত নয়।

আরও পড়ুন

# Breaking: মমতার ধর্ণায় পাঁচ পুলিশকর্তা, কড়া পদক্ষেপের সুপারিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

Shares

Comments are closed.