সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩

বেড নেই, অগত্যা হাসপাতালের করিডরেই প্রসব! দেখেও এগিয়ে এলেন না কেউ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রসব যন্ত্রণায় কাতর হয়ে হাসপাতালে পৌঁছেছিলেন অন্তঃসত্ত্বা। ঠিকভাবে দাঁড়াতেও পারছিলেন না। কিন্তু মুখ ফিরিয়ে নেন চিকিৎসকরা। সাফ জানিয়ে দেন বেড নেই। উপায় না দেখে অগত্যা হাসপাতালের করিডরেই শুয়ে পড়েন ওই মহিলা। সেখানেই জন্ম দেন সন্তানের।

এমন ঘটনা ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের ফারুকাবাদ জেলার অন্যতম সরকারি হাসপাতাল রাম মনোহর লোহিয়া-তে। এমন অমানবিক ঘটনার সাক্ষী ছিলেন অনেকেই। তবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেননি কেউ। কিন্তু সেদিন ওই সময়ে হাসপাতালে থাকা একজন গোটা ঘটনার ভিডিয়ো তুলে পাঠান স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে। মুহূর্তেই তা ভাইরাল হয়ে যায় নেট দুনিয়ায়। ওই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, মহিলার প্রসবের সময় রক্তে ভেসে যাচ্ছিল চারপাশ। দূরে পড়ে রয়েছে সদ্যোজাত। তাকে জড়িয়ে রাখার কাপড়টাও রক্তে ভিজে গিয়েছে। এমন দৃশ্য দেখে শিউরে ওঠেন সকলেই। খানিক পরে এক আত্মীয় এসে বাচ্চাটিকে পরিষ্কার কাপড়ে জড়িয়ে তুলে নেন।

এ দিকে ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই টনক নড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। সেই মুহূর্তেই মহিলাকে তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় লেবার রুমে। কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। সন্তানেপ্রসব করে ফেলেছেন ওই মহিলা। ইতিমধ্যেই এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা শাসক মণিকা রানি। তিনি জানিয়েছেন, দোষীদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ এই প্রথম নয়। ২০১৭ সালে ওই হাসপাতালেই এক মাসে ৪৯ জন শিশুর মৃত্যু হয়েছিল। এ বার ফের এক অমানবিক ঘটনার সাক্ষী রইল এই একই হাসপাতাল।

Comments are closed.