শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০

ভোটের দিন সকালেই জোর করে আঙুলে লাগানো হল কালি, অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার আগেই ভোটারদের হাতে কালি লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। সেইসঙ্গে ভোটারদের টাকা দিয়ে প্রভাবিত করারও অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের চান্দৌলি কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রের তারা-জীবনপুর গ্রামের বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, বিজেপি কর্মীরা জোর করে এই কাজ করেছে। জনৈক গ্রামবাসী বলেন, “আমরা সবাই সপা-বসপা সমর্থক। কাল রাতে বিজেপি কর্মীরা এখানে এসে বলে, আমরা বিজেপিকে ভোট দেব কিনা। এমনকী আমাদের সবাইকে ৫০০ টাকা করে দেয়ও। কিন্তু তারপরেও আমরা বিজেপিকে ভোট দেব না বলি। আজ সকালে বিজেপি কর্মীরা এসে জোর করে আমাদের আঙুলে ভোটের কালি লাগিয়ে দেয়। তারপর বলে, আমাদের ভোট হয়ে গিয়েছে।”

এই ঘটনা নিয়ে জেলা প্রশাসনিক দফতরের বাইরে গিয়ে বিক্ষোভও দেখান গ্রামবাসীরা। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন সপা-বসপা প্রার্থী সঞ্জয় চৌহানও। প্রশাসনের তরফে তাঁদের জানানো হয়েছে, এই ঘটনার জন্য থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। অতিরিক্ত জেলশাসক কুমার হর্ষ জানিয়েছেন, “তারা-জীবনপুর গ্রামের কিছু গ্রামবাসী অভিযোগ করেছেন, তাঁদের আঙুলে কালি লাগিয়ে দিয়ে ও টাকা দিয়ে ভোট দিতে বাধা দেওয়া হয়েছে। আমি বলতে চাই, যদি কেউ ভোট দেওয়ার জন্য যোগ্য হন, তিনি অবশ্যই ভোট দেবেন। আমি সবাইকে আশ্বস্ত করছি। যারা এই ধরণের কাজ করছে, তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

এই ঘটনার ফলে উত্তেজনা রয়েছে ওই ভোটকেন্দ্রে। সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল বাহিনী। তবে বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, এই গ্রামবাসীরা প্রত্যেকে সপা-বসপা সমর্থক। তারা একবার ভোট দিয়েছেন। ফের ছাপ্পা ভোট দিতে গেলে বিজেপি কর্মীরা তাদের বাধা দেয়। ফলে তারা এই ধরণের অভিযোগ করছে।

আরও পড়ুন

ধ্যান করে প্রচারে মোদী, এক সুরে কমিশনে নালিশ কংগ্রেস ও তৃণমূলের

Comments are closed.