বুধবার, মার্চ ২০

তাজিকিস্তানের পর উত্তরপ্রদেশ, সাত সকালে পর পর দু’বার কাঁপল দিল্লি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মৃদু ভূমিকম্পে কাঁপল দিল্লি-সহ জাতীয় রাজধানী অঞ্চল। একবার নয়, পর পর দু’বার। প্রথমটা সকাল ৭টা নাগাদ, দ্বিতীয় কম্পন অনুভূত হয় তার ঠিক এক ঘণ্টা পরেই। তবে ক্ষয়ক্ষতির এখনও কোনও খবর নেই।

দিল্লির আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের শামলি জেলায় মৃদু কম্পনের জেরে কেঁপে ওঠে দিল্লি-সহ জাতীয় রাজধানী অঞ্চল।  কম্পন অনুভূত হয় গুরুগ্রাম, হরিয়ানা-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায়। এর পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই জানান, তাঁরা কম্পন অনুভব করেছেন।

রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৪.০। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, কম্পনের কেন্দ্রস্থল দিল্লি থেকে প্রায় ৯০ কিলোমিটার দূরত্বে শামলি জেলার কান্দালা, ভূপৃষ্ঠের ১০ কিলোমিটার গভীরে। তবে কম্পন জোরালো হয়নি কোথাও। স্থায়িত্বও ছিল খুব কম সময়। কোনও জায়গা থেকেই কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। তবে কয়েকটি জায়গায় কম্পনের জেরে আতঙ্ক ছড়ায়।

অন্যদিকে, জোরালো ভূমিকম্প হয় মধ্য এশিয়ার তাজিকিস্তানে। মার্কিন জিওলজিক্যাল সার্ভে জানিয়েছে,  রিখটার স্কেলে এই কম্পনের তীব্রতা ছিল ৭.২। তার জেরে কেঁপে ওঠে দিল্লি। কম্পনের রেশ ছড়িয়েছে পাকিস্তানেও। এর কেন্দ্রস্থল কারাকুল থেকে ১১১ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে। জোরালো কম্পনে কেঁপে ওঠে তাজিকিস্তানের বেশ কিছু বহুতল। আতঙ্কে রাস্তায় নেমে আসেন মানুষজন। তবে ক্ষয়ক্ষতির কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

চলতি মাসের প্রথমেই পাক-আফগান সীমান্তের কাছে হিন্দুকুশ পার্বত্য এলাকায় ভূমিকম্পের জেরে কেঁপে ওঠে দিল্লি-সহ উত্তর ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকা। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৬.১। দিল্লি এবং আশেপাশের এলাকায় কম্পন স্থায়ী হয়েছিল ৪০-৫০ সেকেন্ড।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.