শুক্রবার, আগস্ট ২৩

কাশ্মীর প্রসঙ্গে পাক বিদেশমন্ত্রী, ফুলমালা নিয়ে কেউ দাঁড়িয়ে নেই আমাদের জন্য, রাষ্ট্রপুঞ্জও না

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জম্মু-কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়ার পর থেকেই ক্ষিপ্ত পাকিস্তান। এই সিদ্ধান্তকে একতরফা দাবি করে রাষ্ট্রপুঞ্জের দ্বারস্থ হয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু দু’দেশের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করবে না বলেই জানিয়ে দিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। ফের রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে আবেদন জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। কিন্তু তাতে বিশেষ লাভ হবে না বলেই জানালেন পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। বললেন, সেখানে কেউ ফুলের মালা নিয়ে অপেক্ষা করবে না।

পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী দেশের লোককে মূর্খের স্বর্গে বাস না করার উপদেশ দিয়েছেন। পিটিভিকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “নিজের অধিকারের দাবি তোলা সহজ নয়, কিন্তু কোনও কিছুতে বাধা দেওয়া অনেক বেশি সহজ। কোনও বিষয়ের গুরুত্ব বুঝে সেটা নিয়ে এগিয়ে চলা সোজা নয়। তারা ( রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ ) আপনাদের জন্য ফুলের মালা নিয়ে অপেক্ষা করবে না। পি-৫ নেশন্সের যে কোনও দেশই আমাদের সামনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে। মূর্খের স্বর্গে বাস করবেন না।”

সোমবারই রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য রাশিয়া ভারতের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছে। আমেরিকা এখনও এই বিষয়ে কোনও পক্ষকে সমর্থন করেনি। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মার্কিন সফরে আমেরিকার প্রেসিডেন্টের ডোনাল্ড ট্রাম্পের করা মধ্যস্থতার মন্তব্যের জন্য কিছুটা সমস্যায় পড়েছে আমেরিকা। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের সমর্থন ভারতের দিকে থাকবে বলেই মনে করছেন কূটনীতিকরা। গ্রেট ব্রিটেন ও ফ্রান্সের সমর্থনও ভারতের দিকে।

একমাত্র চিন আগেও অনেকবার পাকিস্তানের পাশে দাঁড়িয়েছে। গত সপ্তাহে চিন সফর শেষে কুরেশি জানিয়েছেন, চিন এ বারেও পাকিস্তানের পাশে আছে। তারা ভারতের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছে। তবে এই মুহূর্তে বাকি দেশগুলোর বিরুদ্ধে কতটা যাবেন শি জিংপিং, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে খোদ পাকিস্তানের। আর তাই এই ধরণের মন্তব্য করলেন পাক বিদেশমন্ত্রী।

Comments are closed.