রবিবার, অক্টোবর ২০

আটঘাট বেঁধেই নেমেছিলেন মোদী-শাহ! কী বলছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই ছবি

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ৩৭০ ধারা বাতিল করে কাশ্মীরের উপর থেকে স্পেশ্যাল স্ট্যাটাস তুলে নেওয়া হয়েছে। সোমবার রাজ্যসভায় বিরোধীদের প্রবল আপত্তির মধ্যে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সই করা বিবৃতি পড়ে শোনান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তবে এই সিদ্ধান্তে আসার আগে কি পুরো পরিকল্পনা করেই নেমেছিলেন মোদী-শাহ? স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রকাশ হওয়া একটা ছবি কিন্তু সেই ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

সোমবার সকালে প্রথমে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে ক্যাবিনেট মিটিং করেন অমিত শাহ। তারপর মোদীর সঙ্গে আলাদা করে ঘণ্টা খানেক বৈঠক হয় তাঁর। মোদীর সঙ্গে বৈঠক শেষে বাইরে এসে সংবাদমাধ্যমের সামনে হাসিমুখে করজোড়ে ছবি তোলেন তিনি। আর ঠিক তখনই সংবাদসংস্থা এএফপি-র প্রকাশ করা একটা ছবিতেই কিছুটা ধরা পড়ে।

এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, অমিত শাহের হাতে কিছু কাগজপত্র রয়েছে। আর সেই কাগজপত্রেই জম্মু কাশ্মীরের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে সরকারের পরিকল্পনা মাফিক এগিয়ে যাওয়া প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে বেশ কিছু বিষয়ের উপর আগে থেকেই প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। যেমন, আইন শৃঙ্খলা, সাংবিধানিক ও রাজনৈতিক দিক। প্রস্তুতির মধ্যে রয়েছে, ‘রাষ্ট্রপতিকে জানানো’, ‘মন্ত্রিসভার বৈঠক’, ‘রাষ্ট্রপতির বিজ্ঞপ্তি জারি’, ‘সংসদে বিল পাশ করানো’, ‘রাজ্যসভার নিরাপত্তা’, ‘জম্মু কাশ্মীরে স্বরাষ্ট্রসচিবকে পাঠানো’ প্রভৃতি বিষয়।

আর এই ছবি সামনে আসার পরেই কূটনৈতিক মহলের একাংশের বক্তব্য, পুরো পরিকল্পনা করেই ধাপে ধাপে এগিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী ও অমিত শাহ। প্রথমে বাড়ানো হয়েছে উপত্যকার নিরাপত্তা। সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে প্রায় ৪৩ হাজার সেনা। তারপর মন্ত্রিসভার বৈঠক করে রাষ্ট্রপতির সই করা বিজ্ঞপ্তি নিয়ে রাজ্যসভায় পা রেখেছেন শাহ। পর্যবেক্ষকদের মতে, এই ধাপে ধাপে এগনো থেকেই মোদী-শাহের রাজনৈতিক দক্ষতার পরিচয় পাওয়া যায়। আর এই বুদ্ধি দিয়েই রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকা সত্বেও একের পর এক বিল পাশ করিয়ে চলেছেন তাঁরা।

Comments are closed.