শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০

খাবার শুধু নয়, এ বার থলে ভরে বাজারও বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবে সুইগি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বাটি ভরে খাবার শুধু নয়, এ বার থলে ভরে বাজারও বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেবে অনলাইন ফুড ডেলিভারি সংস্থা সুইগি।

ফুড ডেলিভারিতেই আটকে থাকা শুধু নয়, সুইগি জানিয়েছে গ্রাহকদের সুবিধার জন্য আরও নানা রকম স্কিম আনছে তারা। প্রাথমিক ভাবে শুরু হচ্ছে ‘সুইগি গো’ এবং ‘সুইগি স্টোর সার্ভিসেস।’ কাঁচা আনাজ, মশলাপাতি, চাল-ডাল সমেত মুদিবাজার, স্টেশনারি, নিত্যদিনের গৃহস্থালির জন্য যা যা দরকার, লিস্ট ফেললেই হিসেব করে গুছিয়ে দেবে ‘সুইগি স্টোর’। আর সেই সব বাজার ব্যাগে ভরে যত্ন করে বাড়ির দরজায় পৌঁছে দেবে ‘সুইগি গো’।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে এই নতুন পরিষেবার কথা ঘোষণা করেছিল সুইগি। আপাতত সেটা চালু হল। বেঙ্গালুরুতে গত কয়েকদিনে কাজ শুরু করে দিয়েছে ‘সুইগি স্টোর’ এবং ‘সুইগি গো’। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, ৬ কিলোমিটারের মধ্যে কাঁচা আনাজ এবং মুদিবাজার সবটাই পৌঁছে দেবে সুইগি। ইতিমধ্যে অর্ডারের একটা লম্বা তালিকাও জমা পড়েছে সুইগি স্টোরে। দেশের জনপ্রিয় ডেলিভারি সংস্থা ‘ডুনজো’র মতোই বাড়ি বাড়ি পার্সেল পৌঁছে দিচ্ছে সুইগি গো।

গুরুগ্রামের ঘরে ঘরে সুইগি স্টোর পৌঁছে গেছে এর মধ্যেই। বাজারের টাটকা আনাজপাতি, মাছ, মাংস প্যাকেটবন্দি হয়ে সুইগি গো মারফৎ পৌঁছে যাচ্ছে বাড়ির দরজায়। সেই সঙ্গে হেলথ সাপ্লিমেন্ট, বেবি ফুড ও অন্যান্য বেবি প্রোডাক্টও রয়েছে। সুপারমার্কেটের প্রায় সাড়ে তিন হাজার দোকান থেকে জিনিসের জেলিভারি দিয়েছে সুইগি। আরও ২০০টি বড় দোকানের সঙ্গে চুক্তি রয়েছে তাদের।

সুইগির ডেটা সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের হেড ডেল ভাজ় বলেছেন, ‘‘মানুষজনের ব্যস্ততা এবং অসুবিধার কথা মাথায় রেখেই মুদিবাজার, আনাজপাতি ইত্যাদি ডেলিভারি দেওয়ার কথা আমরা ভেবেছি। সাড়াও পেয়েছি যথেষ্ট। আগামী দিনে ওষুধপত্র, পোষ্যের খাদ্য, ক্যান ফুড থেকে আরও অ্যান্য জিনিসও আমরা ডেলিভারি দেব।’’

গত জুন মাস থেকে সাবস্ক্রিপশনের ভিত্তিতে রান্না খাবার পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্বও নিয়েছে সুইগি। হোম ডেলিভারি স্টাইলে সংস্থার বেছে নেওয়া রাঁধুনীদের দিয়েই একেবারে রান্না করে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে গ্রাহকদের কাছে। সুইগির ভাষায়, ‘হোমস্টাইল মিল’। এর পরিষেবা পেতে হলে সাপ্তাহিক, মাসিক বা বার্ষিক ভিত্তিতে সাবস্ক্রাইব করতে হয়।

Comments are closed.