শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১

কেরলের সিপিএম পার্টি অফিসে এসএফআই কর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের বিপাকে কেরল সিপিএম। বছর একুশের এক এসএফআই কর্মীর অভিযোগ, পালাক্কড়ের একটি এরিয়া কমিটির কার্যালয়ে তাঁকে ধর্ষিত হতে হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে কেরলের পালাক্কড় জেলায় রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার হয় এক শিশু। পরিত্যক্ত অবস্থায় শিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা খবর দেন পুলিশে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কেরল পুলিশ শিশুর মাকে খুঁজে বের করে। তাঁকে জেরা করতেই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ সামনে এসেছে।

ওই তরুণী জানিয়েছেন, বছর খানেক আগে কলেজের ম্যাগাজিনের কাজের জন্য তিনি সিপিএম পার্টি অফিসে গিয়েছিলেন। সেখানেই দলের এক কর্মী তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। তারপরই তিনি অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়েন। বুধবার রাতে সন্তান প্রসব করেন ওই তরুণী। পালাক্কড় জেলার এক সিপিএম নেতা জানিয়েছেন, ওই তরুণীর পরিবার দলের সঙ্গে যুক্ত। ঘটনার সঠিক তদন্তের দাবি জানিয়েছেন তিনি। সদ্য মা হওয়া তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত এই ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

বাংলায় অস্তিত্ব সংকট। জমি হাতছাড়া হয়েছে ত্রিপুরাতেও। থাকার মধ্যে শুধুমাত্র কেরল। এ বার দক্ষিণের সেই রাজ্যেই সিপিএমের অবস্থা দেখে অনেকেই বলছেন, ‘লাজ লজ্জার মাথা খেয়েছে দলটা।’ পালাক্কড়ের সিপিএম পার্টি অফিসে এই ঘটনা প্রথম নয়। গত বছর দলের এক যুবনেত্রী, বিধায়ক পিকে শশীর বিরুদ্ধে মানকৌডের পার্টি অফিসে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন। তা নিয়ে তোলপাড় হয়েছিল সিপিএম কেন্দ্রীয় দফতরও। তদন্ত কমিশন গঠন করে ওই বিধায়ককে সাসপেন্ড করে সিপিএম। ফের একবার পাল্লাক্কড়েই এমন ঘটনা সামনে এল।

Comments are closed.