বুধবার, জানুয়ারি ২৯
TheWall
TheWall

ধোঁয়ার চাদরে ঢেকেছে দিল্লি, উদ্বিগ্ন প্রশাসন

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাঝে কিছুদিন দূষণের পরিমাণ কমেছিল রাজধানী দিল্লিতে। ফের তা বেড়েছে। ধোঁয়ার চাদরে ঢেকে গিয়েছে রাজধানী। দূষণ সূচক পৌঁছে গিয়েছে সিভিয়ার ক্যাটেগরিতে। এই পরিস্থিতিতে চিন্তায় অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার।

বুধবার সকালে দিল্লির দূষণ সূচক কিছু কিছু জায়গায় ৫০০ পেরিয়ে গিয়েছে। দিল্লির লোধি রোড এলাকায় বুধবার সকালে পিএম ২.৫ ছিল ৫০০ ও পিএম ১০ ছিল ৪৯৭। একই অবস্থা দিল্লির অন্যান্য এলাকাতেও। নয়ডাতে দূষণ সূচক ছিল ৪৭২। গ্রেটার নয়ডার দূষণ সূচক ৪৫৮। ফরিদাবাদে কিছুটা কম, ৪৪১।

সিস্টেম অফ এয়ার কোয়ালিটি ফোরকাস্টিং অ্যান্ড রিসার্চ-এর তরফে জানানো হয়েছে আগামী দু’দিন দিল্লির দূষণের মাত্রা এরকমই থাকবে। তারপর থেকে ফের দূষণ কিছুটা কমতে পারে। এর মধ্যে দিল্লিতে বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। কিন্তু হাওয়ার গতিবেগ কিছুটা বাড়লে দূষণের পরিমাণ কিছুটা কমবে বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে কমলেও দূষণের মাত্রা ‘পুওর ক্যাটেগরি’ থাকবে বলেই জানাচ্ছে এই সংস্থা।

কিন্তু কী কারণে ফের দূষণের মাত্রা বাড়ছে রাজধানীতে?

এর একটা অন্যতম কারণ হল পাশের হরিয়ানা ও পঞ্জাব থেকে ফসল কাটা। এই সময়েই এই দুই রাজ্যে ফসল কাটা হয়। বাকিটা জ্বালিয়ে দেওয়া হয়। এই ফসলের অংশ ও আগুন জ্বালিয়ে দেওয়ার ধোঁয়া দুইই হাওয়ার ফলে দিল্লির দিকেই আসে। তারসঙ্গে শহরের নিজস্ব দূষণ তো আছেই। সব মিলিয়ে সাংঘাতিক দূষণের কবলে পড়ে দিল্লি।

এই পরিস্থিতির মোকাবিলা কী ভাবে সম্ভব তাই নিয়ে চিন্তায় অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার। তারা ইতিমধ্যেই শহরে ফের জোড়-বিজোড় নীতিতে গাড়ি চালানোর নির্দেশ দিয়েছে। তা ছাড়া মাঝেমধ্যেই ট্যাঙ্কারে করে বিভিন্ন এলাকায় জল ছেটানো হচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই দূষণ কমছে না। সরকারের তরফে মাস্কও বিলি করা হচ্ছে। যতদিন না পরিস্থিতির উন্নতি হয় ততদিন প্রয়োজন না পড়লে বাড়ি থেকে বেরাতে মানা করা হয়েছে জনসাধারণকে।

Share.

Comments are closed.