রবিবার, নভেম্বর ১৭

গবেষণায় বিশ্বের সেরা ৫০-এ কলকাতার ইনস্টিটিউট, দেশজুড়ে আরও পাঁচ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গবেষণার ক্ষেত্রে বিশ্বের সেরা ৫০ ইনস্টিটিউটের মধ্যে জায়গা করে নিল কলকাতার ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ। এই তালিকায় দেশের আরও পাঁচটি ইনস্টিটিউট জায়গা করে নিয়েছে।

সম্প্রতি নেচার রিসার্চ গ্রুপ তাদের ‘নেচার’ নামের জার্নালে এই তালিকা প্রকাশ করেছে। এই গ্রুপ প্রতি বছরই এই তালিকা প্রকাশ করে থাকে। এই তালিকা ঠিক করা হয় নেচার ইনডেক্স র‍্যাঙ্কিংয়ের উপর ভিত্তি করে। এই নেচার ইনডেক্স র‍্যাঙ্কিং আবার বেশ কিছু বিষয়ের উপর নির্ভর করে। তার মধ্যে অন্যতম হল প্রকাশ হওয়া জার্নালের সংখ্যা। কতজন মিলে সসেই জার্নাল লিখেছেন তার উপর নির্ভর করে ‘ফ্র্যাকশনাল কাউন্ট’ করা হয়। এই সব পেরিমিটারের উপর ভিত্তি করেই তালিকা প্রস্তুত করা হয়। যেসব ইনস্টিটিউট ১৯৬৯ সালের পরে তৈরি হয়েছে তাদেরই নাম থাকে এই তালিকায়।

ভারতের যে ছটি ইনস্টিটিউট এই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে সেগুলি হল, মুম্বইয়ের হোমি ভাবা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট, পুনে, ভোপাল ও দিল্লির ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ ও বেঙ্গালুরুর জওহরলাল নেহরু সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড সায়েন্টিফিক রিসার্চ। এদের মধ্যে দেশের প্রথম ও বিশ্বজুড়ে ১৬ নম্বরে রয়েছে হোমি ভাবা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট।

তালিকা ঘোষণার পরে হোমি ভাবা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটের তরফে জানানো হয়েছে, এই সম্মান পেয়ে তারা খুবই খুশি। মাত্র ১৩ বছর হয়েছে এই ইনস্টিটিউটের। তারমধ্যেই এই কৃতিত্ব করে দেখিয়েছে তারা। কলকাতার ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ-এর তরফে জানানো হয়েছে, এই কৃতিত্বের পুরোটাই গবেষকদের প্রাপ্য। সেইসঙ্গে চারটি ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স এডুকেশন অ্যান্ড রিসার্চ এই তালিকায় থাকায় তারা খুবই খুশি।

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯ -এ প্রকাশিত গল্প

Comments are closed.